শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ১০ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:৪১

হিমছড়িতে মৃত তিমি উদ্ধার

কক্সবাজার প্রতিনিধি

হিমছড়িতে মৃত তিমি উদ্ধার
কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতের মেরিনড্রাইভ সড়কের হিমছড়ি সৈকতে গতকাল ভেসে ওঠে বিশালাকৃতির মৃত নীল তিমি -বাংলাদেশ প্রতিদিন
Google News

কক্সবাজার সমুদ্রসৈকতের মেরিনড্রাইভ সড়কের হিমছড়ি সৈকতে ভেসে উঠেছে বিশালাকৃতির মৃত নীল তিমি। গতকাল দুপুরে তিমিটি ভেসে উঠতে দেখতে পায় স্থানীয় বাসিন্দা। তখনো পুরোপুরি জোয়ারের পানি নেমে যায়নি।  জোয়ারের পানি নেমে যাওয়ার পর পূর্ণ ভাটায় সাগরের বালুতটে পড়ে থাকা মৃত তিমি স্পষ্ট দৃশ্যমান হয়। তিমিটি পচন ধরায় গন্ধ ছড়াচ্ছে। সাগরের পানিতে ভাসতে ভাসতে মৃত তিমিটির সামনের অংশ বিকৃত হয়ে গেছে। আনুমানিক ১৬-১৭ বছর বয়সী এ তিমিটি হয়ত ৫/৬ দিন পূর্বে মারা গেছে বলে ধারণা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের। ৪৪ ফুট দীর্ঘ ও ২৬ ফুট প্রস্থ এ তিমিটি আনুমানিক আড়াই টন ওজন হবে। জেলা প্রশাসন, স্থানীয় পুলিশ, বন বিভাগ, পরিবেশ অধিদফতর ও মৎস্য অধিদফতরের সংশ্লিষ্টরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে করণীয় ঠিক করছেন। কক্সবাজার সম্পদ রক্ষা আন্দোলনের মুখপত্র মুফিজুর রহমান জানান, গভীর সাগরে বড় জাহাজের ধাক্কায় অথবা হত্যার কারণে তিমিটির মৃত্যু হতে পারে। বাংলাদেশের জলসীমার বাইরে তিমিটি মারা যেতে পারে।

কক্সবাজার বন ও পরিবেশ সংরক্ষণ পরিষদের সভাপতি দীপক শর্মা জানিয়েছেন, ১৯৯১ সালে লাবণী সৈকতে ও ২০০৮ সালে হিমছড়ি সৈকতে এভাবে ভেসে এসেছিল বিশালাকারের নীল তিমি। দীর্ঘদিন পর আবার বিশালাকৃতির নীল তিমি সৈকতে ভেসে এসেছে।

মেরিন লাইফ বিশেষজ্ঞ জহিরুল ইসলাম জানান, আনুমানিক ১৬ থেকে ১৭ বছর বয়সী এ তিমিটি হয়ত সপ্তাহ পূর্বে মারা গেছে। তিমিটি আড়াই টন ওজন হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কক্সবাজার জেলা মৎস্য কর্মকর্তা এস এম খালেকুজ্জামান জানিয়েছেন, এ প্রজাতির তিমি আমাদের বঙ্গোপসাগরে রয়েছে। বিশেষ করে সুন্দরবনের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলে এসব তিমি দেখা যায়। হয়তো তিমিটি মারা যাওয়ার পর ভাসতে ভাসতে কক্সবাজার সৈকতের উপকূলে ভিড়েছে। কি কারণে মারা গেছে তা জানা যাবে ময়নাতদন্তের পর।

কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) আমিন আল পারভেজ মৃত তিমি পরিদর্শন শেষে বলেন, প্রাথমিকভাবে এটি নীল তিমি হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। প্রাণী সম্পদ অধিদফতর, মৎস্য সম্পদ অধিদফতরের বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে কথা বলে করণীয় ঠিক করা হবে।

এই বিভাগের আরও খবর