শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২২ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২১ এপ্রিল, ২০২১ ২২:৫০

রাজশাহীতে আইসিইউ বেডের জন্য হাহাকার

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

Google News

রাজশাহীতে হু হু করে বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। এরই মধ্যে রাজশাহীকে ঝুঁকিপূর্ণ (উচ্চ সংক্রমণে) চিহ্নিত করা হয়েছে। আগের বারের চেয়ে এবার সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার বেশি। আর যারা করোনা আক্রান্ত হচ্ছেন তার অধিকাংশেরই অক্সিজেন সাপোর্ট প্রয়োজন হচ্ছে। তবে আক্রান্ত পাল্লা দিয়ে বাড়লেও ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) একটিও বেড বাড়েনি। ফলে আইসিইউ বেডের জন্য হাহাকার পড়ে গেছে। সংক্রমণের উচ্চঝুঁঁকিতে থাকা জেলাগুলোর মধ্যে রাজশাহী বিভাগের রাজশাহী, বগুড়া, নওগাঁ ও নাটোর আছে। তবে সবচেয়ে ঝুঁঁকিতে রাজশাহী ও বগুড়া। এ দুই জেলায় কলকারখানা ও সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান বেশি। এজন্য দেশের বিভিন্ন এলাকার মানুষ প্রতিনিয়ত যাতায়াত করছে। ভারতেও বিভিন্ন কাজে এ দুই জেলার মানুষই বেশি যাচ্ছে। এ ছাড়া স্বাস্থ্যবিধি মানায় অসচেতন থাকায় করোনা সংক্রমণ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস জানান, তিন তলাবিশিষ্ট ৫৩০ শয্যার হাসপাতাল ভবনটি ১৯৬৫ সালের এপ্রিলে চালু হয়। মূল ভবনের মাঝখানে ফাঁকা জায়গায় আরও একটি নতুন চার তলা ভবন নির্মাণ করা হয়েছে যা ২০১২ সালে চালু হয়। এতে আরও ৩৫২ বেড ও ৬টি অপারেশন থিয়েটার যুক্ত করা হয়।

 ফলে হাসপাতালের মোট বেড দাঁড়ায় ৮৬২-তে। হাসপাতালে অপারেশন থিয়েটারের উত্তর পাশে আরও একটি ভবন নির্মাণ করা হয়। তাতে ১০ বেডবিশিষ্ট আইসিইউ চালু করা হয় ২০১২ সালে। বর্তমানে হাসপাতালের শয্যা সংখ্যা ১ হাজার ২০০।

রাজশাহী বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক হাবিবুল আহসান জানান, রাজশাহী বিভাগের মধ্যে সবচেয়ে বেশি শনাক্তের সংখ্যা বগুড়া ও রাজশাহীতে। গত মাসেও করোনা টেস্ট ও শনাক্তের সংখ্যা কম ছিল। কিন্তু সময় যতই গড়াচ্ছে আক্রান্তও ততই বাড়ছে। প্রতিদিন প্রায় ৮০০ জনের মতো করোনা টেস্ট করছেন। এর মধ্যে শতাধিক শনাক্তও হচ্ছেন।

এই বিভাগের আরও খবর