শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৪ মে, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৩ মে, ২০২১ ২৩:২৬

আওয়ামী লীগ নেতার বাড়ি থেকে অস্ত্রসহ শীর্ষ সন্ত্রাসী আটক

সাভার প্রতিনিধি

Google News

সাভার উপজেলার আশুলিয়ার ইয়ারপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান সাহেদের বাড়ি থেকে বিপুলসংখ্যক দেশি অস্ত্র উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ সময় শীর্ষস্থানীয় সন্ত্রাসী রনিসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪। শনিবার দিবাগত গভীর রাতে ইয়ারপুর ঘোষবাগ এলাকার ইয়ারপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান সাহেদের বাড়ি থেকে এসব অস্ত্র জব্দ করা হয়। জব্দ করা অস্ত্রের মধ্যে রয়েছে সড়কি, ঢাল, চাইনিজ কুড়াল, রামদা এবং দেশি অস্ত্র তৈরির বিভিন্ন সরঞ্জাম। আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুজ্জামান জানান, ইয়ারপুর ইউনিয়নে প্রায়ই দেশি অস্ত্র ঢাল-সড়কি, রামদা ও তরবারি নিয়ে দাঙ্গা বাধে। এলাকায় আধিপত্য বিস্তারে এসব অস্ত্র ব্যবহার করা হয়। এতে হতাহত, বাড়িঘর-ভাঙচুর, লুটপাট ও আইনশৃঙ্খলার অবনতি ঘটে আসছে দীর্ঘদিন ধরে। এমন দাঙ্গার জন্য ইয়ারপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমান সাহেদের বাড়িতে বিপুলসংখ্যক দেশি অস্ত্র মজুদ ছিল।

খবর পেয়ে গভীর রাতে তার বাড়িতে অভিযান চালিয়ে এসব দেশি অস্ত্র জব্দ করা হয়। এ সময় ওই বাড়িতে বসে শীর্ষ সন্ত্রাসী ও ঢাল তৈরির কারিগর মনসুর আলী রনি, সোনা মিয়া রাজু, আকাশ ও কালাম হোসেনকে আটক করে র‌্যাব।

এদিকে আশুলিয়ায় অভিযান চালিয়ে ছিনতাই ও ডাকাতির প্রস্তুতিকালে সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের তিন সদস্যকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪।

গতকাল সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মিরপুর র‌্যাব-৪-এর (অপস) এএসপি জিয়াউর রহমান চৌধুরী।

গ্রেফতার ব্যক্তিরা হলেন মো. আলিফ (৩২), মো. কালাম (৪৮), মো. রুবেল মৌলভি (২৭), মো. লিটন রানা (২৭), মো. রাকিব (২২), মো. রেজাউল করিম (২৮) ও মো. মিলন মিয়া (৩২)। ২২ মে রাত ৯টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আশুলিয়ার বাইপাইল ও পল্লীবিদ্যুৎ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এ সময় কয়েকজন ছিনতাইকারী যানবাহনে ছিনতাই ও ডাকাতি করার জন্য অবস্থান করছিল। পরে এক ঘণ্টা অভিযান চালিয়ে ঘটনাস্থল থেকে একটি ক্ষুর, একটি হাঁসুয়া, একটি ইলেকট্রিক কাটার, একটি কাঁচি, দুটি প্লায়ার্স, একটি গ্যাস কাটার, তিনটি টেস্টার, চারটি ড্রিল মেশিন ও ১৩টি মোবাইলসহ সাতজনকে গ্রেফতার করা হয়। আসামিরা দীর্ঘদিন ধরে দলবদ্ধ হয়ে ঢাকা জেলার সাভার, আশুলিয়া, ধামরাইয়ের বিভিন্ন স্থানে রাতের অন্ধকারে যানবাহনে সাধারণ মানুষকে ভয়ভীতি দেখিয়ে নগদ টাকা, মোবাইল ফোন, স্বর্ণালঙ্কার প্রভৃতি ডাকাতি করে আসছিল বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়।

এই বিভাগের আরও খবর