শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ১ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩০ জুন, ২০২১ ২৩:৪৬

আইসিটি আইনে গ্রেফতার নাটোরের মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নেতার মুক্তি দাবি

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

Google News

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার নাটোর জেলা মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সাধারণ সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান সেন্টুর মামলা প্রত্যাহার ও তার নিঃশর্ত মুক্তির দাবি জানিয়েছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। এ সময় সেন্টুর বিরুদ্ধে মামলার মদদদাতাদের শাস্তির দাবিও জানায় সংগঠনটি। গতকাল বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যে এক মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে এ দাবি জানান মঞ্চের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। এর আগে ২৫ জুন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও গণভবনের নামে ভুয়া ফেসবুক পেজ খুলে প্রতারণার অভিযোগে সেন্টুকে গ্রেফতার করে সিআইডি। সমাবেশে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল বলেন, সেন্টুর বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রীর নামে ফেসবুক আইডি খোলার যে অভিযোগ আনা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন। ‘ডেইলি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা’ নামে একটি পেজে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিটি উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড ধারাবাহিকভাবে প্রচার করা হতো যা একজন আওয়ামী পরিবারের সদস্যের অন্যতম কাজ। কোনো অসদুদ্দেশ্য থাকলে পেজে অবশ্যই সরকারবিরোধী লেখা থাকত। কিন্তু এ পেজে সরকারবিরোধী কোনো পোস্ট নেই। তিনি বলেন, ভুয়া ইউটিউব অ্যাকাউন্ট, ফেসবুক আইডি, পেজ, গ্রুপ ইত্যাদি খুলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রতিনিয়ত সরকারবিরোধী নানা অপপ্রচার ও গুজব ছড়ানো হচ্ছে। এসব অপপ্রচারকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিয়ে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষশক্তির একজন অনলাইন অ্যাকটিভিস্ট সেন্টুকে গ্রেফতার করায় তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। তিনি নাটোরে গ্রুপিং রাজনীতির শিকার হয়েছেন।

একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে গ্রেফতার করানোর পেছনের ‘মূল কুশীলব ও মদদদাতা’ জুনাইদ আহমেদ পলকের মুখোশ উন্মোচন করার ঘোষণাও দেন তিনি। সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আল মামুন বলেন, মোস্তাফিজুর রহমান সেন্টুকে কেন গ্রেফতার করা হয়েছে? তিনি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নাটোরের সিংড়া উপজেলায় নিয়োগে যে অনিয়ম-বাণিজ্য চলছিল তার প্রতিবাদ করেছিলেন। তাকে সুস্পষ্টভাবে বলতে চাই- একজন বীর মুক্তিযোদ্ধার সন্তানকে গ্রেফতার করে আমাদের কী বার্তা দিলেন? আপনি ‘মেসেজ’ দিয়েছেন, আপনি মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়, স্বাধীনতায় বিশ্বাস করেন না।

এই বিভাগের আরও খবর