শিরোনাম
প্রকাশ : ২ আগস্ট, ২০২০ ০৪:১২
আপডেট : ২ আগস্ট, ২০২০ ১০:৩০

করোনায় মস্তিষ্কে আঘাত, সন্তানকে জন্ম দিয়েও চিনতে পারছেন না মা!

অনলাইন ডেস্ক

করোনায় মস্তিষ্কে আঘাত, সন্তানকে জন্ম দিয়েও চিনতে পারছেন না মা!
সিলভিয়া লেরয়

গর্ভবতী অবস্থায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন এক নার্স। কন্যাসন্তানের জন্ম দিলেও সুস্থ হয়ে আর তিনি মনে করতে পারছেন না নিজের গর্ভাবস্থার কথা। ঘটনাটি ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের ব্রুকলিনের বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল মেডিক্যাল সেন্টারের নার্স সিলভিয়া লেরয়ের সঙ্গে। ৩৫ বছরের ওই নারী হাসপাতালের লেবার এবং ডেলিভারি ওয়ার্ডে কর্মরত।

২৮ সপ্তাহের গর্ভবতী থাকাকালীন সিলভিয়ার কোভিড-১৯ পজিটিভ ধরা পড়ে এবং গর্ভাবস্থার ৩০ সপ্তাহে তার কার্ডিয়্যাক অ্যারেস্ট হয়। শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল হওয়ার পর সি-সেকশনের দ্বারা সন্তান প্রসব করানোর জন্য তাকে ইমার্জেন্সি রুমে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। কারণ হিসেবে চিকিৎসকরা জানান, তাঁরা ভয় পেয়েছিলেন, গর্ভের সন্তানের কোনও ক্ষতি হতে পারে। 

ইমার্জেন্সি রুমে চার মিনিট সিলভিয়ার মস্তিস্কে অক্সিজেন যায়নি। যার ফলে তার অ্যানোক্সিন ব্রেইন ইনজুরি হয়ে যায়। এবং মস্তিস্কে এই আঘাত সিলভিয়ার মস্তিষ্কের মোটর ফাংশন থেকে শুরু করে স্মৃতিতেও প্রভাব ফেলেছে। কিন্তু সিলভিয়ার মেয়ে এস্থার সম্পূর্ণ সুস্থ অবস্থায় জন্ম নেয়।

সিলভিয়ার বড় বোন শিরলি বললেন, ওই দুর্ঘটনার পর থেকে তার বোন কথা বলতে পারেন না ঠিক মতো। এমনকি তার তিন মাসের এস্থার তো বটেই তার এবং তার স্বামী জেফ্রির প্রথম সন্তান, তিন বছরের ছেলে জেরেমিয়াকেও মনে করতে পারছেন না সিলভিয়া। সিলভিয়া সম্পূর্ণ ভুলে গিয়েছেন যে তিনি কখনও গর্ভবতী ছিলেন। 

চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে সিলভিয়ার পরিবারের সব সদস্যরাই সবসময় তার পাশে থেকে তাকে সমর্থন করে চলেছেন। গত এপ্রিলে তারা সিলভিয়ার চিকিৎসার খরচ তুলতে ‘‌গো ফান্ড মি’‌ নামে একটি তহবিলও খুলেছেন যাতে এখন পর্যন্ত ৯,২৮,০০০ মার্কিন ডলার অনুদান উঠেছে।
 


বিডি-প্রতিদিন/সিফাত আব্দুল্লাহ


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর