শিরোনাম
প্রকাশ : ৮ মে, ২০২১ ০৯:০৮
আপডেট : ৮ মে, ২০২১ ১০:৫৯
প্রিন্ট করুন printer

করোনা রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছাতে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা দাবি!

অনলাইন ডেস্ক

করোনা রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছাতে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা দাবি!
প্রতীকী ছবি
Google News

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতি গোটা ভারতের। সবাই নিজের মতো করে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। যে যেমন পারছেন অন্যের পাশে থাকার চেষ্টা করছেন। কিন্তু কিছু অসাধু লোক এই বিপদের সময়েও মানুষের অসহায়তার সুযোগ নিতে চাইছে। অসহায়তার সুযোগ নিতে চাওয়ায় দিল্লির এক অ্যাম্বুল্যান্স মালিক গ্রেফতার হয়ে গেল পুলিশের হাতে। কারণ সে এক করোনা রোগীকে হাসপাতালে পৌঁছে দিতে ১ লাখ ২০ হাজার টাকা দাবি করে।

দিল্লি পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নামে ইন্দ্রপুরি থানা। অভিযোগ, করোনা আক্রান্ত রোগীর আত্মীয়দের কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ টাকা চেয়েছিলেন মিমোহ কুমার বিন্দওয়াল নামে অ্যাম্বুল্যান্স মালিক। তদন্তে নেমে পুলিশ দেখে ওই ব্যক্তি রোগী নিয়ে যেতে দ্বিগুন, তিনগুন বা তার থেকেও বেশি টাকা চাইছেণ কখনও কখনও। এরপরই পুলিশ মিমোহকে গ্রেফতার করে।

তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, গত প্রায় একমাস ধরে এই কাণ্ড করে যাচ্ছিল মিমোহ। এর মাঝে সুযোগ বুঝে প্রচুর মানুষকে এভাবে প্রতারণাও করেছে। পুলিশ পরে আরও জানতে পারে, ওই অ্যাম্বুল্যান্স মালিক একজন এমবিবিএস ডাক্তার। গত ২ বছর ধরে সে অ্যাম্বুল্যান্স ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত। পুলিশের হাতে ধরা পড়ার পর ওই অ্যাম্বুল্যান্স মালিক করোনা আক্রান্ত রোগীর পরিবারকে টাকা ফেরতও দেয়। তবে পুলিশ তার একটি অ্যাম্বুল্যান্স বাজেয়াপ্ত করেছে। ইন্দ্রপুরি থানায় ওই অ্যাম্বুল্যান্স মালিকের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধি ৪২০ ধারায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তদন্ত চলছে।


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ তাফসীর