শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৯ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০২

জনপ্রিয়তা পাচ্ছে পুলিশ কর্মকর্তার শালিস

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

জনপ্রিয়তা পাচ্ছে পুলিশ কর্মকর্তার শালিস

হবিগঞ্জে শালিসের মাধ্যমে বিরোধ নিষ্পত্তিতে মনযোগী হয়েছেন পুলিশ কর্মকর্তা। বিরোধীয় পক্ষগুলোকে নিয়ে বসে তাদের কথা শুনেন। সাক্ষিদেরও সাক্ষ্য নেন। এরপর তা মীমাংসা করে দেন। অনেক শালিস করেন গল্পের ছলে। এমন অভিনব কৌশল বেছে নিয়েছেন হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম। তিনি জানান, মানুষের সমস্যাগুলো নিজের মনে করেই দেখি। তাদের সুখ-দুঃখের কথা শুনি। মানুষ যখন তার ক্ষোভের কথা মন খুলে বলতে পারে তখন তার ক্ষোভ অনেকটা কমে যায়। আমি তাদের কথা মনযোগ দিয়ে শুনি। তিনি বলেন, ছোটখাট বিষয়ে মামলা মোকদ্দমায় মানুষ জড়িয়ে তার সহায়-সম্পদ সব নষ্ট করে। এগুলো আমাকে পীড়া দেয়। আদালতে দৌড়ে মানুষ সব নষ্ট করে। এ সব থেকে পরিত্রাণ পেতেই শালিসে বিরোধ নিষ্পত্তির উদ্যোগী হই। এতে পুলিশের প্রতিও মানুষের আস্থা বাড়ে। এখন পুলিশকে ভয় নয়, আপন মনে করে মানুষ। জানা যায়, গত এক বছরে সদর, লাখাই ও শায়েস্তাগঞ্জ উপজেলায় ১০০টি বিরোধ শালিসে নিষ্পত্তি করেছেন এই পুলিশ কর্মকর্তা। হাটবাজার, স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসায় করেন সচেতনতামূলক সভা। সব শ্রেণির মানুষের কাছে নিজের মোবাইল নাম্বার ছড়িয়ে দেন। যেন কেউ বিরোধে জড়ালেই তাকে জানাতে পারে।


আপনার মন্তব্য