শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১৮ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৭ নভেম্বর, ২০২০ ২৩:১৮

মেয়েকে হত্যার কথা স্বীকার করলেন বাবা

মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি

নিজ মেয়েকে পানিতে ফেলে হত্যার কথা স্বীকার করলেন বাবা। পারিবারিক কলহের কারণে সিংগাইর উপজেলার ফতেপুর গ্রামের আল-আমিন এক বছরের শিশুকন্যাকে পানিতে ফেলে হত্যার কথা আদালতে শিকার করেছেন। গত সোমবার আদালতে  হত্যার দায় শিকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন তিনি। পুলিশ জানায়, বিয়ের পর থেকেই স্বামী স্ত্রীর মধ্যে কলহ বিবাদ ছিল। গত ৩ নভেম্বর স্ত্রী হোসনে আরাকে মারধর করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন আল-আমিন। এ সময় এক বছরের শিশু কন্যা মিমকে নিজের কাছে রেখে দেন।

পরে এক বছর বয়সী শিশু  মীমকে নিয়ে আত্মগোপন করে আল আমিন। খোঁজাখুঁজি করেও স্বামী সন্তানের সন্ধান না পেয়ে ৪ নভেম্বর থানায় লিখিত অভিযোগ করেন হোসনে আরা। ৬ নভেম্বর সন্ধ্যায় কালিগঙ্গা নদীর পাড় থেকে হাত-পাবিহীন শিশু মিমের লাশ উদ্ধার হয়। ৬ নভেম্বর কালিগঙ্গা নদী থেকে শিশুর লাশ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায়  শিশুর মা হোসনে আরা  বাদী হয়ে স্বামী আল-আমিন, শ্বশুর আবদুল হালিম,  শাশুড়ী নাছিমা বেগমসহ ছয়জনকে আসামি করে থানায় হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা  সিংগাইর থানাধীন শান্তিপুর তদন্ত কেন্দ্রের উপ পরিদর্শক ফরহাদুজ্জামান ভুইয়া বলেন, ঘটনার পর থেকে আসামি পলাতক ছিল। রবিবার রাতে আল আমিনকে গ্রেফতার করা হয়। সোমবার আদালতে শিশু হত্যার কথা শিকার কওে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর