শিরোনাম
প্রকাশ : বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ২৩:৩৬

বিদ্রোহীতে নাকাল আওয়ামী লীগ সুফল নিতে চায় বিএনপি

মো. হাসানুর রহমান ঝন্টু, বরগুনা

বিদ্রোহীতে নাকাল আওয়ামী লীগ সুফল নিতে চায় বিএনপি

তৃতীয় ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে আগামী ৩০ জানুয়ারি বরগুনার পাথরঘাটা ও বরগুনা সদর পৌরসভায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। বরগুনার দুটি পৌর নির্বাচনকে ঘিরে বইছে নির্বাচনী আমেজ। শেষ মুহূর্তে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা সরগরম গোটা নির্বাচনী এলাকা। এই নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় বিপাকে পড়েছে আওয়ামী লীগ। আর একক প্রার্থীর সুবিধা নিয়ে জয়ী হতে চায় বিএনপি। বরগুনা পৌর নির্বাচনে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন বরগুনা জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ স¤পাদক ও জেলা যুবলীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট কামরুল আহসান মহারাজ এবং পাথরঘাটায় পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন পাথরঘাটা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আনোয়ার আকন। বরগুনা পৌর নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করছেন বর্তমান মেয়র মো. শাহাদাত হোসেন। তিনি বরগুনা পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ স¤পাদক ছিলেন। পাথরঘাটা পৌরসভা দলীয় মনোনয়ন পেয়েছেন। এখানে আওয়ামী লীগের দুই বিদ্রোহী প্রার্থী মোস্তাফিজুর রহমান ও শাহ আলম মল্লিক। মোস্তাফিজুর রহমান পাথরঘাটা উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি ও শাহ আলম মল্লিক উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য। তাদেরকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তৃণমূল নেতা-কর্মীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নির্বাচনে মেয়র পদে আনোয়ার হোসেন আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়ার পর স্থানীয় নেতা-কর্মীরা ঐক্যবদ্ধভাবে নৌকা প্রতীকের প্রার্থীকে বিজয়ী করতে কাজ করছেন। তবে নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় সহজ জয় নিয়ে বিপাকে পড়েছে আওয়ামী লীগ। এদিকে বরগুনা পৌরসভায় দুবারের নির্বাচিত মেয়র আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে বিদ্রোহী হিসেবে নির্বাচন করছেন। আর একক প্রার্থী থাকায় জয়ের প্রত্যাশা বিএনপি। তবে দুটি পৌরসভাতেই আওয়ামী লীগের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে দাঁড়িয়েছে আওয়ামী লীগ বিদ্রোহী। বরগুনা পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থীর কয়েকজন কর্মীরা জানান, দলীয় প্রার্থীর প্রচারণায় অংশ নিচ্ছেন তারা। তারা বলেন, দুটি পৌরসভায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী রয়েছে। আমরা মনে করি অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আমরা জয়ী হবো। আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান মেয়র শাহাদাত হোসেন বলেন, সুষ্ঠু নির্বাচন হলে আমি জয়ের প্রত্যাশা করি।

আমাদের পিরোজপুর প্রতিনিধি জানান, পিরোজপুরের স্বরূপকাঠী পৌরসভায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি’র প্রার্থীসহ মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন ৬ জন প্রার্থী। এদের মধ্যে নৌকা প্রতীক ও ধানের শীষ প্রতীকের দুজন প্রার্থী থাকলেও একই দলের বিদ্রোহী প্রার্থীও আছেন পৌরসভার ভোট লড়াইয়ে। ফলে সুবিধাজনক অবস্থায় রয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মাহমুদুর রহমান খান। জানা যায়, স্বরূপকাঠী পৌরসভায় আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন বর্তমান মেয়র মো. গোলাম কবির এবং বিএনপি থেকে পৌর বিএনপির সভাপতি মো. শফিকুল ইসলাম ফরিদ। এছাড়া পৌর যুবলীগের শিশির কর্মকার জগ প্রতীক, পৌর বিএনপির আবুল কালাম আজাদ নারিকেল গাছ  এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী সহকারী অধ্যাপক মাহমুদুর রহমান খান মোবাইল ফোন প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করছেন। এ পৌরসভায় আওয়ামী লীগ থেকে  মেয়র পদে মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন ৯ জন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর