শিরোনাম
প্রকাশ : শনিবার, ২৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৪ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০৩

৯ ইউনিয়নে ভিজিডি প্রকল্পে পচা চাল বিতরণ

মেহেরপুর প্রতিনিধি

মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার ৯ ইউনিয়নে ভিজিডি প্রকল্পে পচা চাল বিতরণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিষয়টি সংশ্লিষ্ট খাদ্য কর্মকর্তা ও উপজেলা নিবাহী কর্মকর্তাকে (ইউএনও) জানালেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে অভিযোগ ইউপি চেয়ারম্যানদের। ইতিমধ্যে কয়েকজন চেয়ারম্যান এই চাল ফেরতও দিয়েছেন। সাহারবাটি ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম ফারুক বলেন, আমার অবর্তমানে পরিষদে ট্রাকে করে চাল দিয়ে  গেছে। তখন চাল পচা বলে সুবিধাভোগীরা অভিযোগ করেছেন। আমি সামনের মিটিংয়ে বিষয়টি নিয়ে কথা তুলব। তিনি বলেন, গরিব মানুষকে সরকারের দেওয়া ভালো চালের পরিবর্তে কখনোই পচা চাল দেওয়া যাবে না। আরও কয়েকজন চেয়ারম্যান বলেন, যখন জানতে পারলাম চালের মান খারাপ বা পচা তখনই তা ফেরত দেওয়া হয়েছে। পরে ওই চালের সঙ্গে কিছু ভালো চাল মিশিয়ে আবার পাঠিয়ে দিয়েছে। ষোলোটাকা ইউনিয়নে চাল নিতে আসা অসহায় বৃদ্ধা শরিফুন নেছা বলেন, পচা চাল নেব না। আমি শেখ হাসিনার কাছে দাবি জানাই এ চাল ফেরত নেওয়া হোক। গাংনী খাদ্য কর্মকর্তা হাসান সাব্বির বলেন, ‘চাল তো ভালো চাল। ১০ মাস ধরে গুদামে রাখার কারণে কিছুটা গন্ধ আসছে।’ ইউপি চেয়ারম্যানরা কেন ফেরত দিলেন- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘আসলে এ চাল সম্পর্কে চেয়ারম্যানরা বুঝতে পারেননি। পরে ইউএনও স্যারকে দিয়ে বুঝিয়ে চালগুলো আবার দেওয়া হয়েছে।’

ইউএনও সেলিম শাহ নেওয়াজ বলেন, ওই চাল নেওয়ার জন্য কাউকে সুপারিশ করা হয়নি। এক মাসের জন্য দেওয়া হয়েছে। সামনের মাস থেকে ভালো চাল দেবে বলে আমার কাছে খাদ্য পরিদর্শক বলেছেন। মেহেরপুর-২ আসনের এমপি সাহিদুজ্জামান খোকন বলেন, দুস্থ অসহায় জনগণের কথা মাথায় রেখে জননেত্রী শেখ হাসিনা ভালো চাল বরাদ্দ দিয়ে থাকেন। এ চাল বিতরণে অনিয়ম বা চালের মান খারাপসহ কোনো ধরনের অনিয়ম মেনে নেওয়া হবে না। আমি বিষয়টি অবশ্যই দেখব।

এই বিভাগের আরও খবর