শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ২৬ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ জুলাই, ২০২১ ০১:৪১

মাসুদ হত্যার ঘটনায় মামলা

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

মাসুদ হত্যার ঘটনায় মামলা
Google News

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লার পাগলায় পাওনা টাকা লেনদেনকে কেন্দ্র করে মাসুদ (২৫) নামক এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় মামলা হয়েছে। শনিবার রাতে নিহতের বাবা রফিকুল ইসলাম বাদী হয়ে ৯ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা আরও ১০/১২ জনকে আসামি করে ফতুল্লা মডেল থানায় মামলাটি করেন। মামলায় উল্লেখ করা হয় যে, শনিবার পাগলা নয়ামাটি শাহী মহল্লার গ্রেফতারকৃত সোহেল, রনি, সাওন, ইমরান, মাসুম, রাজু, মো. আক্তার (২৭), খলিল ড্রাইভারের পুত্র বাবু (২৪), মৃত বাহার উদ্দিনের পুত্র আকাশসহ অজ্ঞাতনামা আরও ১০/১২ জন সন্ত্রাসী লাবুনী জুস কারখানার সামনে তার ছোট ছেলেকে একা পেয়ে টাকা দাবি করে মারধর করতে থাকে। এ সময় কোন- কার্টন ব্যবসায়ী তার বড় ছেলে মাসুদ ঘটনা দেখতে পেয়ে ছোট ভাইকে বাঁচাতে এগিয়ে গেলে সন্ত্রাসীরা মাসুদকে কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে। পরে স্থানীয় বাসীর সহায়তায় মাসুদকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মাসুদকে মৃত ঘোষণা করে। ফতুল্লা মডেল থানার ওসি রকিবুজ্জামান জানান, মামলা হয়েছে।

 টাকা-পয়সা লেনদেনকে কেন্দ্র করে শনিবার দুপুরে সোহেল ও তার সহযোগীরা কুপিয়ে  মাসুদকে হত্যা করে। পরে নিহতের বাবা বাদী হয়ে শনিবার রাতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ ঘটনার পরপর মামলার এজাহারভুক্ত প্রধান আসামি সোহেলকে একটি সুইচ গিয়ারসহ আটক করে। জড়িত অপর সব আসামিদেরকে গ্রেফতার অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে তিনি জানান। প্রসঙ্গত, টাকা-পয়সা লেনদেনকে কেন্দ্র করে শনিবার দুপুর ১২ টার দিকে নিহত মাসুদের ছোট ভাই শাওনের সঙ্গে আটককৃত সোহেলের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে শাওন ও সোহেল গ্রুপের মধ্যে মারামারি শুরু হয়। এ সময় মাসুদ ছোট ভাইকে বাঁচাতে এগিয়ে এলে   সোহেল ও তার সহযোগীদের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে রক্তাক্ত জখম হয় মাসুদ। তাকে উদ্ধার করে ঢাকা  মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মাসুদকে মৃত ঘোষণা করে। অপরদিকে স্থানীয় এলাকাবাসী একটি সুইচ গিয়ার চাকুসহ  সোহেলকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

এই বিভাগের আরও খবর