শনিবার, ৩১ জুলাই, ২০২১ ০০:০০ টা

দেড় যুগ ধরে শিকলবন্দী

বোয়ালমারী (ফরিদপুর) প্রতিনিধি

দেড় যুগ ধরে শিকলবন্দী

বোয়ালমারীতে রবিউল ইসলাম নামে এক যুবক দেড় যুগ ধরে শিকলবন্দী। মাত্র ১০ বছর বয়সে মানসিক ভারসাম্য হারান তিনি। এর পর থেকে গত ১৮ বছর অস্বাভাবিক জীবনযাপন করছেন।

রবিউল উপজেলার ময়না ইউনিয়নের বর্নিরচর পশ্চিমপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে। গতকাল সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, রবিউল বাড়ির একটি ভাঙা ঘরে ছোট গর্তে শুয়ে আছেন। কোমরে শিকল বাঁধা। মুখভর্তি ঘন দাড়ি। পরনে কোনো কাপড় নেই। নুরুল ইসলাম বলেন, রবিউল ১০ বছর পর্যন্ত সুস্থ-স্বাভাবিক ছিল। হেসেখেলে বেড়াত। তৃতীয় শ্রেণিতে পড়ার সময় হঠাৎ করে তার মধ্যে মানসিক ভারসাম্যহীন অবস্থা দেখতে পাই। এরপর সাধ্যমতো চিকিৎসা করিয়েও সুস্থ করতে পারিনি। রবিউলের ছোট ভাই ইনামুল হোসেন বলেন, বর্তমানে ভাই যে ঘরে থাকে এখানে আমাদের মুদি দোকান ছিল। প্রায় ১৮ বছর এই ঘরেই ভাইটা পড়ে আছে। মাজায় ও পায়ে শিকল দিয়ে বাঁধা। সারাদিন শুধু হাত দিয়ে মাটি খুঁড়ে। হাঁটতে পারে না। কথা বলতে পারে না।  শরীরে কাপড়-চোপড় রাখে না। স্থানীয় ময়না ইউপি চেয়ারম্যান নাসির সেলিম বলেন, ছেলেটি মানসিক ভারসাম্যহীন। শিকল খুলে দিলেই ও অন্যত্র চলে যায়। কাপড় পরনে রাখতে চায় না। খবর পেয়ে ইউএনও ঝোটন চন্দ সম্প্রতি রবিউলের বাবার হাতে পাঁচ হাজার টাকা এবং খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন। তার সুচিকিৎসার জন্য আর্থিকভাবে সাহায্য করারও প্রতিশ্রুতি দেন ইউএনও।

এই রকম আরও টপিক