রবিবার, ১৯ ডিসেম্বর, ২০২১ ০০:০০ টা

চার লেনের সড়কের তিন লেনই থ্রি হুইলারের দখলে

টাঙ্গাইল প্রতিনিধি

চার লেনের সড়কের তিন লেনই থ্রি হুইলারের দখলে

থ্রি হুইলারের দখলে টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী বাসস্ট্যান্ড -বাংলাদেশ প্রতিদিন

যানজটমুক্ত করতে ও চলাচলের সুবিধার্থে দুই লেনের সড়ক করা হয়েছে চার লেন। আর এ চার লেনের সড়কের তিন লেনই অটোরিকশা ও  থ্রি হুইলারের দখলে থাকায় মানুষের জনভোগান্তি বেড়ে গেছে। প্রতিনিয়তই ভোগান্তিতে নাজেহাল হতে হচ্ছে ধনবাড়ীবাসীকে। এতে বিপাকে পড়েছে জরুরি সেবার গাড়ি, শিক্ষার্থী, কর্মজীবি ও ব্যবসায়ীরা। সড়কটি টাঙ্গাইল-জামালপুর মহাসড়কের ধনবাড়ী বাসস্ট্যান্ড। জনভোগান্তিতে চলাচলকারীরা এখন ক্ষুব্ধ। তবে, প্রশাসন ও পৌর কর্তৃপক্ষ ভোগান্তি নিরসনে কাজ করা হচ্ছে বলে জানায়। স্থানীয়রা জানান, যখন বাসস্ট্যান্ডটি দুই লেনের ছিল তখন কোনো যানজট ছিল না। কিন্তু সম্প্রতি বাসস্ট্যান্ডটি চলাচলের সুবিধার্থে ও যানজটমুক্ত রাখতে চার লেনে রূপান্তর করা হয়। কিন্তু চার লেন করাতেই বেড়ে গেছে ভোগান্তি। যানজট নিরসনেও নেওয়া হচ্ছে না পদক্ষেপ। সরেজমিনে ধনবাড়ী বাসস্ট্যান্ড এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, এখানে নির্ধারিত কোনো বাস টার্মিনাল না থাকায় যাত্রীবাহী বাস, ট্রাক, লরি, রিকশা, অটো-রিকশা ও সিএনজিসহ বিভিন্ন যানবাহন যত্রতত্র রেখে চার লেনের সড়কটির তিন লেনই দখল করে রেখেছে। এতে করে সৃষ্টি হচ্ছে লম্বা যানজটের। এ সময় জরুরি সেবার গাড়ি, শিক্ষার্থী ও কর্মজীবীরা যানজটে পড়ে বিপাকে পড়ছে। রাস্তার দুপাশে ব্যবসায়ীদের দোকানগুলোর সামনে রাখা আছে দূরপাল্লার যাত্রীবাহী বাস। দোকানগুলোতে ঠিকভাবে আসতে পারছে না  ক্রেতা। তেমন কোনো প্রশাসনিক ও পুলিশি তৎপরতা না থাকায় বেপরোয়া গতিতেই চলছে মোটরসাইকেলসহ বিভিন্ন যানবাহন। জীবনের ঝুঁকি নিয়েই পারাপার হচ্ছে কোমলমতি শিক্ষার্থী ও পথচারীরা। যেখানে-সেখানে থামানো হচ্ছে অটো-রিকশা ও সিএনজি।  স্কুল শিক্ষার্থী কেয়া আক্তার ও  মো. রহিম মিয়া বলেন, ‘বাসস্ট্যান্ড পার হয়ে আমাদের প্রতিদিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে যেতে হয়। কিন্তু যানজটের কারণে সময়মতো যেতে পারি না। গাড়িগুলো যেভাবে তেড়ে আসে অনেক ভয় লাগে। প্রশাসনের দৃষ্টি কামনা করি। বাংলাদেশ লাইব্রেরির স্বত্বাধিকারী মো. রুকনুজ্জামান রুবেল বলেন, ‘আমার দোকানের সামনে যেখানে-সেখানে বাস-ট্রাক রেখে দোকানে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে।  লোভা-মুক্ত পেপার হাউজের মালিক মো. নূরুল ইসলাম বলেন, এভাবে গাড়ি রেখে আমাদের অনেক ক্ষতি করছে। আমরা এর প্রতিকার চাই। ধনবাড়ী পৌর সভার মেয়র মুহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেন, ‘যানজটমুক্ত করতে ও ভোগান্তি নিরসনে কাজ করা হচ্ছে। বাসস্ট্যান্ড এলাকায় অবাধে যানবহন না রাখার জন্য বলা হচ্ছে। শিগগিরই ব্যবস্থা নেওয়া হবে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সামিউল হক জানান, ‘বিষয়টি মেয়র সঙ্গে আলোচনা করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সর্বশেষ খবর