শিরোনাম
প্রকাশ : ১৯ এপ্রিল, ২০১৯ ১১:০৬

বগুড়ায় সন্ত্রাসীদের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

বগুড়ায় সন্ত্রাসীদের মধ্যে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত
নিহত স্বর্গ

বগুড়ায় দুই দল সন্ত্রাসীদের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে এক শীর্ষ সন্ত্রাসী নিহত হয়েছেন।  নিহতের নাম স্বর্গ (২২)।

বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে বগুড়া শহরের উপশহর-ধরমপুর সংযোগকারী ধুন্দল ব্রিজের দক্ষিণ পশ্চিম পার্শ্বে সুবিল খালপাড়ে এই বন্দুক যুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানায়, বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে  ধুন্দল ব্রিজ এলাকায় গোলাগুলির শব্দ শুনে পুলিশের কয়েকটি দল সেখানে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে একজনকে গুরুতর আহতাবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। পরে বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী এবং সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান তাকে উদ্ধার করে টহল পুলিশের গাড়িতে দ্রুত বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের (শজিমেক)  জরুরি বিভাগে  নিয়ে যান। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। হাসপাতালে উপস্থিত লোকজন তাকে  ঠনঠনিয়া শহীদ নগর (খান্দার) এলাকার সন্ত্রাসী স্বর্গ বলে শনাক্ত করেন।

এদিকে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ একটি বিদেশি পিস্তল, একটি ম্যাগাজিন, এক রাউন্ড গুলি এবং একটি বার্মিজ চাকু উদ্ধার করেছে।

বগুড়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) সনাতন চক্রবর্তী জানান, পুলিশের রেকর্ডে  দেখা যায় নিহত স্বর্গের নামে সদর এবং শাজাহানপুর থানায় খুন, চাঁদাবাজি অস্ত্র আইনে ৭টি মামলা রয়েছে। সম্প্রতি শাজাহানপুরের জামাদারপুকুর এবং শহরের খান্দার মালগ্রাম এলাকায় সে ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছিল।

নিহত স্বর্গ বগুড়া শহরের ঠনঠনিয়া শহীদ নগর এলাকার মৃত লিয়াকতের ছেলে। লিয়াকত ছিলেন বগুড়া শহরে শীর্ষ সন্ত্রাসীদের একজন। পেশাদার খুনী হিসেবে লিয়াকত পুলিশের তালিকাভুক্ত ছিলেন।২০০৪ সালে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে লিয়াকত নিহত হন।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য