শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ মে, ২০১৯ ১৭:০৩

'সিজার অপারেশন হচ্ছে নারীর প্রতি ভয়ানক সহিংসতা’

ফরিদপুর প্রতিনিধি:

'সিজার অপারেশন হচ্ছে নারীর প্রতি ভয়ানক সহিংসতা’

ফরিদপুরে ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে সার্বক্ষণিক স্বাভাবিক প্রসব সেবা জোরদারকরণ শীর্ষক আলোচনা সভায় বক্তারা বলেছেন, বর্তমান সময়ে নারীদের উপর যে সহিংসতা হচ্ছে তার মধ্যে অন্যতম সহিংসতা হচ্ছে ‘সিজারের মাধ্যমে অপারেশন’। 

সিজার অপারেশনই নারীর প্রতি ভয়ানক সহিংসতা। এ সহিংসতা ক্রমেই বাড়ছে। দেশের প্রাইভেট ক্লিনিক ও হাসপাতালগুলোতে ৭৯ ভাগ সিজার অপারেশন করা হচ্ছে। আর সরকারি হাসপাতালে সিজার করা হচ্ছে ৩৬ ভাগ। সিজার অপারেশন ভয়ানক আকারে বাড়ছে। এটি বন্ধ না করা গেলে দেশে মাতৃমৃত্যুর হার কমানো যাবে না। মাতৃমুত্যর হার কমাতে হলে সিজার অপারেশন বন্ধ করতে হবে। আর এজন্য সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে। 

আজ সোমবার দিনব্যাপী এ সভার আয়োজন করে এমসিএইচ ইউনিট, পরিবার-পরিকল্পনা অধিদপ্তর ঢাকা। উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কার্যালয়ের বাস্তবায়নে সদর উপজেলা অডিটোরিয়ামে আয়োজিত এ সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন পরবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের ঢাকা বিভাগের পরিচালক বজ্র গোপাল ভৌমিক। 

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোবাশ্বের হাসানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুর রাজ্জাক মোল্লা, বিএমএ সভাপতি ডা. আসম জাহাঙ্গীর চৌধুরী টিটো, সিভিল সার্জন ডা. এনামুল হক, পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের উপ পরিচালক ডা. তৃপ্তি বালা, পরিবার পরিকল্পনা ফরিদপুরের উপ পরিচালক মোহাম্মদ আলী সিদ্দিকী, গাইনী বিশেষজ্ঞ ডা. দিলরুবা জেবা, কামরুল হাসান প্রমুখ। 

অবহিতকরণ সভায় জরুরি প্রসূতি সেবায় গর্ভবতী মা এবং পরিবারকে অর্থ সঞ্চয়ের বিষয়ে উদ্ভুদ্ধ করতে ‘মায়ের ব্যাংক’ প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে বলে জানানো হয়। এই ব্যাংকের জমানো অর্থের মাধ্যমে প্রসূতি মা জরুরি সেবার জন্য কারো কাছে টাকার জন্য হাত পাততে কিংবা ঋণ করতে হবে না। 

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার

 


আপনার মন্তব্য