শিরোনাম
প্রকাশ : ২৫ জুন, ২০১৯ ২২:৫৪

কয়রা উপজেলায় ২২ দিনের মাথায় ছাত্রলীগের নতুন কমিটি!

তৃণমূলে ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা:

কয়রা উপজেলায় ২২ দিনের মাথায় ছাত্রলীগের নতুন কমিটি!

খুলনায় মাত্র ২২ দিনের মাথায় কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের ৫ সদস্যের নতুন কমিটি ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। একই সাথে পূর্বের কমিটি বাতিল করা হয়েছে। এ ঘটনায় তৃণমূলে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে। এরই মধ্যে নতুন কমিটি বাতিলের দাবিতে কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

জানা যায়, খুলনা জেলা ছাত্রলীগ গত ২ জুন সালাউদ্দিন আহমেদকে সভাপতি ও এসএম সোহেল রানা সৌরভকে সাধারণ সম্পাদক করে কয়রা উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করে। এতে উপজেলা ছাত্রলীগসহ ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ের নেতাকর্মীরা নতুন কমিটিকে স্বাগত জানায়। কিন্তু নতুন কমিটি কাজ শুরু করার আগেই ওই কমিটি বাতিল করে শরিফুল ইসলাম টিংকুকে সভাপতি ও হাদিউজ্জামান রাসেলকে সাধারণ সম্পাদক করে উপজেলা ছাত্রলীগের নতুন কমিটি ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। এ ঘটনায় সংগঠনের তৃণমূলের নেতাকর্মীরা হতবাক হয়ে পড়েন। 

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পারভেজ হাওলাদার বলেন, পূর্বের কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিষয়ে কারো কোন অভিযোগ ছিল না। তারপরও কেন্দ্রীয় কমিটি হঠাৎ করে ২৪ জুন রাতে উপজেলা ছাত্রলীগের এই কমিটি বাতিল করে নতুন কমিটি দিয়েছে। তবে নতুন কমিটির নেতাদের সাথে মাঠ পর্যায়ের কর্মী-সমর্থকদের যোগাযোগ নাই।

অভিযোগ রয়েছে, পূর্বের উপজেলা ছাত্রলীগ কমিটিতে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও প্রভাবশালী আওয়ামী লীগ নেতাদের অনুসারীদের নাম না আসায় তারা ক্ষিপ্ত হয়। কমিটি গঠনের পর এ কারণে ছাত্রলীগ জেলা সভাপতি পারভেজ হাওলাদারকে হত্যার হুমকিও দেয়া হয়। ওই ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়রী করা হয়েছে। 

কয়রার দক্ষিণ বেতকাশি ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জহিনুল আলম বলেন, নতুন কমিটি ঘোষণা হওয়ার পর বিভিন্ন স্থানে ছাত্রলীগের ত্যাগী নেতাকর্মীদের ওপর হামলা হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে সাংগঠনিকভাবে কর্মসূচি নেওয়া হয়েছে।  

বিডি প্রতিদিন/হিমেল


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর