শিরোনাম
প্রকাশ : ১৪ আগস্ট, ২০১৯ ১০:২৯
আপডেট : ১৪ আগস্ট, ২০১৯ ১৪:২৬

ঘুম কেড়ে নিল প্রাইভেটকারচালকের প্রাণ, সার্কেল এএসপিসহ আহত ৩

নাটোর প্রতিনিধি

ঘুম কেড়ে নিল প্রাইভেটকারচালকের প্রাণ, সার্কেল এএসপিসহ আহত ৩

নাটোরের বড়াইগ্রামে পুলিশের পিকআপ ও প্রাইভেটকারের সাথে সংঘর্ষে শাহজাহান আলী (৫০) নামে এক প্রাইভেটকার চালক নিহত হয়েছে। বুধবার সকালে বনপাড়া-হাটিকুমরুল মহাসড়কের মহিষভাঙ্গা রোড় এলাকায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত প্রাইভেটকার চালক শাহজাহান আলী মুন্সিগঞ্জ জেলার কাচারিঘাট এলাকার মৃত ইমান আলীর ছেলে।

দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ, সার্কেল এএসপির বডিগার্ড ইব্রাহিম হোসেন এবং গাড়ী চালক মোবারক হোসেন। আহতদের স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়ার পর নাটোর সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।

বড়াইগ্রাম থানার ওসি দিলীপ কুমার জানান, বুধবার সকালে বনপাড়া থেকে ঢাকাগামী একটি প্রাইভেটকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বড়াইগ্রাম থেকে বনপাড়া যাওয়ার সময় সার্কেল এএসপির গাড়ীর সাথে সংঘর্ষ হয়। দুমরে মুচরে যায় প্রাইভেটকারটি। এতে ঘটনাস্থলেই প্রাইভেটকার চালক শাহজাহান আলীর মৃত্যু হয়। পরে পুলিশের গাড়িতে থাকা বড়াইগ্রাম সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হারুন অর রশিদ, সার্কেল এএসপির বড়ি গার্ড ইব্রাহিম হোসেন এবং গাড়ী চালক মোবারক হোসেন গুরুতর আহত হয়।

পরে স্থানীয়রা এবং পুলিশ গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে বনপাড়ার একটি ক্লিনিকে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের নাটোর সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়।

ওসি জানান, দীর্ঘ সময় গাড়ি চালানোর কারণে প্রাইভেটকার চালক ঘুমিয়ে পড়েছিলেন। যার কারণে গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ ছিল না।

এদিকে, খবর পাওয়ার পর ছুটে যান জেলা পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহাসহ পুলিশের ঊর্দ্ধতন কর্মকর্তারা।

জেলা পুলিশ সুপার লিটন কুমার সাহা জানান, এএসপির গাড়ী চালক মোবারক হোসেনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। তাকে আমরা রাজশাহীতে পাঠানোর জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করছি।

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা


আপনার মন্তব্য