Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ১২:৫১

রায়পুরে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত শিল্পীরা

রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি

রায়পুরে প্রতিমা তৈরিতে ব্যস্ত শিল্পীরা

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলায় আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর মহালয়ার মধ্য দিয়ে বয়ে আনবে সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সবচেয়ে বড় উৎসব দেবী দূর্গার আগমন। তাই প্রতিমা তৈরিতে মন্দিরে মন্দিরে চলছে শিল্পীদের ব্যস্ততা। এ বছর দেবী আসছেন ‘ঘটকে’ চড়ে আর যাবেনও ঘটকে চড়ে। শারদীয় দূর্গা উৎসবকে ঘিরে দেবী দূর্গা ও অসুরের রণযুদ্ধের ঘটনাগুলো সংক্ষিপ্ত পৌরানিক কাহিনী মূর্তির মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলছেন তারা।

উপজেলার প্রতিটি পূজা মন্ডপে চলছে প্রতিমা নির্মাণ ও নানা সাজ-সজ্জাসহ পূজা উৎসবের প্রস্তুতি।

দেবীর আগমন উপলক্ষে দিন রাত পরিশ্রম করে চলছেন মৃৎশিল্পীরা। তাদের নিপুণ হাতের ছোঁয়ায় তৈরি হচ্ছে একেকটি অসাধারণ প্রতিমা।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, মন্ডপগুলোতে বিভিন্ন আকার আর নানা ঢংয়ের সব কারুকাজে দেবী দূর্গার মূর্তি বানানোর ব্যস্ততা। সকাল থেকে গভীর রাত অবধি কাদামাটি, খড়, কাঠ, বাঁশ আর সুতলি দিয়ে তৈরি করা হচ্ছে প্রতিমা। প্রতিমাকে পূর্ণরূপ দেওয়ার কাজে ব্যস্ত মৃৎশিল্পীরা। এখন দম ফেলার সময় নেই তাদের। 

প্রতিমা তৈরির শিল্পী চন্দ্রন সূত্রধর ও বলরাম পোদ্দার জানান, মাটির কাজ প্রায় শেষ, এখন শুধু বাকি রংতুলির আঁচড় এবং সাজ-সজ্জার কাজ। যথা সময়ের মধ্যে প্রতিমা তৈরির কাজ সম্পূর্ণ হয়ে যাবে। এবছর রায়পুর উপজেলায় ১১টি পূজা মন্ডপে দূর্গা পূজা উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। 

রায়পুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তোতা মিয়া বলেন, পূজা উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখার জন্য দিনে ও রাতে বাড়তি নজরদারিসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে সকল পূজা মন্ডপের সদস্যদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছি। পূজা মন্ডপগুলো সব সময় পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য