শিরোনাম
প্রকাশ : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২২:২৭
আপডেট : ১৭ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২২:২৮

খুলনায় স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ, থানায় মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, খুলনা

খুলনায় স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণ, থানায় মামলা

খুলনার দিঘলিয়ায় বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে সপ্তম শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে তিন বন্ধু। এ ঘটনায় সোমবার বিকালে দিঘলিয়া থানায় ধর্ষণ মামলার পর পুলিশ শাহিন (২৬) নামের এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে। অসুস্থ ওই স্কুলছাত্রীকে সন্ধ্যায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনী ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে। 

জানা যায়, দিঘলিয়ার চন্দনিমহল এলাকায় একই বাড়ির ভাড়াটিয়া শরিফুল ইসলাম (৩০) বিভিন্ন সময়ে কৌশলে ওই মেয়ের আপত্তিকর ছবি তোলে। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে ওই বাড়ি থেকে শরিফুলকে বের করে দেওয়া হয়। গত ১৪ ফেব্রুয়ারি (ভালোবাসা দিবসে) শরিফুল মোবাইল ফোনে স্কুলছাত্রীকে ওইসব ছবি ফেরৎ দেওয়ার কথা বলে ফুলবাড়িগেট এলাকায় ডেকে নেয়। সেখান থেকে চন্দনিমহলে শরিফুলের নতুন ভাড়া বাসায় নিয়ে মেয়েটিকে শরিফুলসহ তার দুই বন্ধু শাহিন এবং কাজল সারারাত ধর্ষণ করে। পরের দিন ১৫ ফেব্রুয়ারি সকালে বাড়ি ফিরে অভিভাবকদের জানালে তারা শরিফুলের সাথে কথা বলতে চেষ্টা করেন। কিন্তু একটি পক্ষ বিষয়টি ধামাচাপা দিতে কালক্ষেপন করে। এরই মধ্যে সোমবার দুপুরে অসুস্থ হয়ে পড়লে মেয়েটিকে নিয়ে স্বজনরা দিঘলিয়া থানায় হাজির হয়। পরে মেয়েটির আত্মীয় (পিসি) বাদী হয়ে থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। মামলা নং- ০৪ (তারিখ ১৭/০২/২০ইং)। পুলিশ ওই স্কুলছাত্রীকে হেফাজতে নিয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের গাইনী ওয়ার্ডে ভর্তি করেন। 
দিঘলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, মামলার দায়েরের পর অভিযুক্ত শাহিনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকি দুই আসামিকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।  

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দী


আপনার মন্তব্য