শিরোনাম
প্রকাশ : ৯ এপ্রিল, ২০২০ ১৯:৩৬

করোনা আক্রান্ত জেলা থেকে চাঁদপুরে ১২৪ জনের অবস্থান

চাঁদপুর প্রতিনিধি:

করোনা আক্রান্ত জেলা থেকে চাঁদপুরে ১২৪ জনের অবস্থান

করোনা আক্রান্ত জেলা ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জ থেকে নৌ-পথে ট্রলারে এবং সড়কের বিভিন্ন বাহনে চাঁদপুর সদর, হাইমচর, ফরিদগঞ্জ ও হাজীগঞ্জে ১২৪ জন নিজ বাড়িতে অবস্থান নিয়েছেন। 

এরমধ্যে হাইমচর উপজেলায় ৪৯ জনের হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করেছে উপজেলা প্রশাসন। চাঁদপুর সদরের ২৪ জনের হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান। বৃহস্পতিবার সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানগণ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

স্থানীয় প্রশাসন ও ইউপি চেয়ারম্যানরা জানান, হাইমচর উপজেলায় চরভৈরবী, চরভাঙ্গা, মহজমপুর, আলগী, নয়ানী গন্ডামারা ও পশ্চিম চরকৃষ্ণপুর গ্রামে বুধবার রাত পর্যন্ত ৫০ জন এসেছেন। এরমধ্যে ৪৯ জনকে হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করা হয়েছে। 

হাইমচর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মেজবা উল আলম ভুঁইয়া জানান, তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টিনে রাখার জন্য স্থানীয় চেয়ারম্যান, ইউপি সদস্য ও গ্রাম পুলিশ নজরদারিতে রয়েছেন।

চাঁদপুর সদর উপজেলার চান্দ্রা ইউনিয়নে নারায়নগঞ্জ থেকে এসেছেন ২১জন। এসব লোকদের বাড়ীতে লাল পতাকা টানিয়ে দিয়েছেন ইউপি চেয়ারম্যান খান জাহান আলী কালু পাটওয়ারী। উপজেলার রামপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ আলগী গ্রামের দাস বাড়িতে নারায়নগঞ্জ থেকে এসেছেন ৩ জন। তাদেরকে হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান আল মামুন পাটওয়ারী। লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়নে একজন এসেছেন নারায়নগঞ্জ থেকে। খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক ওই বাড়ি লকডাউনের ব্যবস্থা করেন ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম খান। ইব্রাহীমপুর ইউনিয়নে নারায়নগঞ্জ থেকে এসেছেন ২ জন।

ফরিদগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শিউলি হরি বৃহস্পতিবার সকালে বলেন, এপর্যন্ত আক্রান্ত জেলা থেকে ফরিদগঞ্জের ৫ ইউনিয়নে এসেছেন ৪৭ জন।

উপজেলার ৬নং পশ্চিম গুপ্টি ইউনিয়নের স্থানীয় লোকজন জানান, আদশা গ্রামের হাজি বাড়ী, মোল্লা বাড়ি, পাঁচকড়ী মিজি বাড়ী, পাঠান বাড়ি, লাউতলী মিজি বাড়ী, লাউতলী তপাদার বাড়ী, লাউতলী জমাদার বাড়ী, খাজুরিয়া লদের বাড়ীসহ আশাপামের গ্রামে নারায়নগঞ্জ থেকে প্রায় অর্ধশত লোক এসেছেন। এদের মধ্যে অনেকে নারায়ণগঞ্জে কারখানায় কাজ করতেন। তাদের হোম কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করেছেন বলে জানান চেয়ারম্যান আবুল কালাম ভূঁইয়া।

এছাড়া হাজীগঞ্জ উপজেলায় একজন এসেছেন সোনারগাঁও থেকে। তিনি উপজেলার ৬নং বড়কুল পূর্ব ইউনিয়ন এর কাজিরখিল বেপারী বাড়ীর বিল্লাল হোসেন বেপারীর ছেলে। তবে সে সরকারি নির্দেশ না মানায় তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের কথা জানান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আফজাল হোসেন।

চাঁদপুরবাসীকে করোনা ভাইরাস থেকে সুরক্ষায় আক্রান্ত জেলা থেকে আগত ব্যক্তিদের তথ্য দিয়ে সহযোগীতার জন্য সর্বস্তরের মানুষের প্রতি আহবান জানিয়েছেন চাঁদপুর জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান ও পুলিশ সুপার মো. মাহবুবুর রহমান।

বিডি প্রতিদিন/এ মজুমদার


আপনার মন্তব্য