শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ২০:৪৮

নাটোরে নারী সবজি বিক্রেতাকে ভ্যান উপহার

নাটোর প্রতিনিধি

নাটোরে নারী সবজি বিক্রেতাকে ভ্যান উপহার

জীবন যুদ্ধে হার না মানা সংগ্রামী নারী সবজি খালা বলে খ্যাত হাজেরা বেগমকে মেশিন চালিত ভ্যান উপহার দিলো নাটোরের প্রথম অনলাইন টেলিভিশন হ্যালো নাটোর। শুক্রবার বিকেলে শহরের নিচাবাজারে সবজি খালার হাতে মেশিন লাগানো ভ্যানের চাবি তুলে দেন নাটোর পৌরসভার মেয়র উমা চৌধুরী জলি। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ টুয়েন্টিফোরের নাটোর প্রতিনিধি নাসিম উদ্দীন নাসিম, হ্যালো নাটোর পরিবারের অন্যতম সদস্য শেখ রিফাদ মাহমুদ, নাহিদ আহমেদ,ওয়াকিল আহমেদ।

‘সবজি নিবেন গো সবজি’ হাক ডাকা এক ফেরিওয়ালা সবজি খালা হাজেরা বেগম। ভাঙ্গা ভ্যানে সবজি বিক্রি করার কারনে নাটোর শহরের পাড়া মহল্লার লোকজনের কাছে তিনি সবজি খালা নামে পরিচিত। গত ১২ বছর ধরে শাকসবজি বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করছেন তিনি। প্রথমে মাথায় করে শাকসবজির ডালা নিয়ে পায়ে হেঁটে পাড়া মহল্লায় ঘুরে সবজি বিক্রি করতে খুব কষ্ট হতো।

বছর চারেক আগে এক ব্যক্তি দুই হাজার টাকা দান করেছিলেন । আর নিজের কাছে ছিল এক হাজার। এই তিন হাজার টাকায় পুরাতন লক্কড় ঝক্কড় ভ্যানটা কিনেছিল। আর সেটা নিয়েই জীবন সংগ্রামে নামলেন স্বামী পরিত্যক্তা হাজেরা বেগম। প্রতিদিন আয় হয় ২০০ থেকে ৩০০টাকা। সেটা দিয়েই কোন মতো চলে বৃদ্ধ মা এবং তিন শিশু সন্তানসহ পাঁচ সদস্যের সংসার।

একটি মেশিন লাগানো ভ্যান হলে তিনি আরো বেশি আয় করবেন বলে জানিয়েছিলেন। পরে হ্যালো নাটোর সবজি খালাকে মেশিন লাগানো ভ্যান দেওয়ার উদ্যোগ নেয়। পরে নাটোর জেলা এসোসিয়েশন ইউকে ইনক, লাঠি বাঁশি ও জাগো বাহে কোনঠে সবাই এর প্রতিষ্ঠাতা আব্দুস সালাম, সৌদি প্রবাসী জহুরুল ইসলাম, সিঙ্গাপুর প্রবাসী বিশিষ্ট সমাজসেবিকা চম্পা জামান, গার্মেন্টস ব্যবসায়ী রবিনসহ বেশ কয়েকজন ব্যক্তির সহযোগিতায় সবজি খালাকে মেশিন লাগানো ভ্যান উপহার দেওয়া হয় । 

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন

 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর