শিরোনাম
প্রকাশ : ২৭ জানুয়ারি, ২০২১ ১৯:৫৮
প্রিন্ট করুন printer

শাহেদের ‍বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি কাল

অনলাইন ডেস্ক

শাহেদের ‍বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের শুনানি কাল
রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহেদ করিম। ফাইল ছবি

রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শাহেদ ওরফে শাহেদ করিমের বিরুদ্ধে অস্ত্র ও বিস্ফোরক মামলায় অভিযোগ গঠনের শুনানির জন্য আগামীকাল বৃহস্পতিবার দিন ধার্য করেছেন আদালত। 

বুধবার সকালে সাতক্ষীরা জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমানের আদালতে তাকে হাজির করলে আসামি পক্ষের আইনজীবী শুনানির সময় বাড়ানোর আবেদন করে। পরে আদালত আগামীকাল দিন ধার্য করে আবারো তাকে সাতক্ষীরা কারাগারে পাঠায়।

উল্লেখ্য, গত বছরের ১৫ জুলাই ভোরে সাতক্ষীরার দেবহাটা উপজেলার শাখরা কোমরপুর এলাকা দিয়ে ভারতে পালানোর চেষ্টা করে শাহেদ করিম। বোরখা পরিহিত শাহেদকে কোমরপুর বেইলি ব্রিজের নিচ থেকে র‌্যাব-৬ এর সদস্যরা তাকে আটক করে। এসময় তার কাছে থাকা একটি অবৈধ পিস্তল, ৩ রাউন্ড গুলি, ২৩৩০ ভারতীয় রুপি, ৩টি ব্যাংকের এটিএম কার্ড ও মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। 

এ ঘটনায় র‌্যাবের ডিএডি নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে অস্ত্র ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে দেবহাটা থানায়  শাহেদ করিম ও জনৈক বাচ্চু মাঝিকে আসামি করে একটি মামলা করেন। 

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:৪৭
প্রিন্ট করুন printer

বিলুপ্তপ্রায় প্রাণী গন্ধগোকুল উদ্ধার

সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি

বিলুপ্তপ্রায় প্রাণী গন্ধগোকুল উদ্ধার

সিরাজগঞ্জের বেলকুচি উপজেলার ধুকুরিয়া এলাকায় শিশুদের তাড়া খেয়ে পুকুরে আটকা পড়া বিলুপ্তপ্রায় প্রাণী গন্ধগোকুল উদ্ধার করা হয়েছে। আটকে পড়ার ৩২ ঘণ্টা পর বৃহস্পতিবার বিকেলে পরিবেশবাদী সংগঠন দি বার্ড সেফটি হাউজের সদস্যরা গন্ধগোকুল প্রাণীটি উদ্ধার করেন। 

পরিবেশবাদী সংগঠন দি বার্ড সেফটি হাউজের চেয়ারম্যান মামুন বিশ্বাস জানান, গন্ধগোকুল উদ্ধারের বিষয়টি রাজশাহী বিভাগীয় বন্য প্রাণী পরিদর্শককে অবহিত করা হয়েছে।  

মামুন বিশ্বাস আরো জানান, বর্তমানে গন্ধগোকুল আমার হেফাজতে একটি বাঁশঝাড়ে অবমুক্ত করেছি। এই প্রাণীটি লোকালয়ের কাছাকাছি ঝোপ-জঙ্গলে বাস করে। তাল-খেজুর রস, ফল ও সবজি খেয়ে বেঁচে থাকে। কৃষির জন্য ক্ষতিকর পোকামাকড় ও ইঁদুর খেয়ে কৃষকের উপকার করে থাকে।  

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:২২
আপডেট : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:২৭
প্রিন্ট করুন printer

বিএনপি-জামায়াত অপরাজনীতির খেলায় মেতেছে: এস এম কামাল

নিজস্ব প্রতিবেদক, রাজশাহী

বিএনপি-জামায়াত অপরাজনীতির খেলায় মেতেছে: এস এম কামাল

বিএনপি-জামায়াত দেশে রাজনীতির নামে অপরাজনীতির খেলায় মেতেছে। তারা নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করে নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ এবং বানচালের অপচেষ্টায় লিপ্ত থাকে। তারা কখনও জনগণের ভোটে নির্বাচিত হয়নি। যারা পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষতায় আসতে চায়, তারা কখনও জনগণের ভালো চাইতে পারে না। তাদের এসব অপচেষ্টা রুখতে শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করতে হবে। 

রাজশাহীর চারঘাট পৌরসভার নির্বাচন আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী একরামুল হকের নির্বাচনী পথসভায় কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে চারঘাট পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে এ পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। 

নৌকার প্রার্থী একরামুল হককে বিপুল ভোটে বিজয়ী করার আহ্বান জানিয়ে সাধারণ ভোটারের উদ্দেশে এসএম কামাল হোসেন আরও বলেন, সবখানেই লেগেছে উন্নয়নের ছোঁয়া। তাই উন্নয়নের ধারাবাহিকতা টিকিয়ে রাখতে নৌকা মার্কায় ভোট বিপ্লব ঘটিয়ে নৌকার বিজয় সুনিশ্চিত করতে হবে। মনে রাখবেন নৌকা মনেই উন্নয়ন। নৌকা মানেই শান্তির অগ্রদূত। নৌকা মানেই শান্তির আবাসস্থল। তাই শান্তির রাজ্যে যারা আগুন নিয়ে খেলতে চায় তাদের বয়কট করুন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সাবেক এমপি রায়হানুল হক, উপজেলা চেয়ারম্যান ফকরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মেরাজ উদ্দিন মোল্লা, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ দারা, নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। 

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২২:০১
প্রিন্ট করুন printer

শেরপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোখলেছুর, সম্পাদক তারিকুল

শেরপুর প্রতিনিধি

শেরপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মোখলেছুর, সম্পাদক তারিকুল
সভাপতি মোখলেছুর রহমান আকন্দ (বাঁয়ে) ও সাধারণ সম্পাদক তারিকুল ইসলাম ভাসানী।

শেরপুর জেলা আইনজীবী সমিতির কার্যনির্বাহী পরিষদের নির্বাচনে সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকসহ আওয়ামী লীগ ও সমমনাদের সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ নিরঙ্কুশভাবে জয়ী হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার সমিতির ২ নম্বর বার ভবনে অনুষ্ঠিত ওই নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্যানেল ১০ পদে ও বিএনপি সমর্থিত প্যানেল ৩ পদে জয়ী হয়েছে।

এতে সমন্বয় পরিষদ সমর্থিত অ্যাডভোকেট মোখলেছুর রহমান আকন্দ ৮৬ ভোট পেয়ে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপি ও সমমনাদের সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের প্রার্থী অ্যাডভোকেট মো. সিরাজুল ইসলাম পেয়েছেন ৭২ ভোট।

আর সাধারণ সম্পাদক পদে ১০৯ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন সমন্বয় পরিষদের অ্যাডভোকেট তারিকুল ইসলাম ভাসানী। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ঐক্য পরিষদের প্রার্থী অ্যাডভোকেট ছামিউল ইসলাম আতাহার পেয়েছেন ৪২ ভোট। এই সমিতির মোট ভোটার ১৫৯ জন।

এছাড়া অন্যান্য পদে জয়ীরা হচ্ছেন সহ-সভাপতি পদে হরিদাস সাহা (আওয়ামী লীগ) ও আশরাফুল আলম লিচু (বিএনপি), সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে মো. রাশেদুর রহমান রাসেল (বিএনপি) ও আমিনুল ইসলাম মমিন (আওয়ামী লীগ), ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদে মুক্তারুজ্জামান মোক্তার (বিএনপি), সাহিত্য ও পাঠাগার সম্পাদক পদে মেরাজ উদ্দিন চৌধুরী (আওয়ামী লীগ), অডিটর পদে শিবলু চন্দ্র দাস (আওয়ামী লীগ) এবং নির্বাহী সদস্য পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী নির্বাহী সদস্য রুকনুজ্জামান রুকন (আওয়ামী লীগ), ফকির মো. নাহিদুজ্জামান (আওয়ামী লীগ), মো. আকরামুজ্জামান (আওয়ামী লীগ) ও মো. এরশাদ আলী লিটন (আওয়ামী লীগ)।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার সিনিয়র আইনজীবী নারায়ণ চন্দ্র হোড় জানান, ১৩ সদস্য বিশিষ্ট এ নির্বাহী পরিষদের চারজন সদস্য বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ায় ৯টি পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে  বিকেল ৩টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এবার সমিতির ১৫৯ জন ভোটারের মধ্যে সবাই তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:৫৯
প্রিন্ট করুন printer

ছাত্রদলের কমিটিতে আওয়ামী লীগ নেত্রীর বিবাহিত ছেলে!

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

ছাত্রদলের কমিটিতে আওয়ামী লীগ নেত্রীর বিবাহিত ছেলে!
এম. রিফাত বিন জিয়া

২১ সদস্যের ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের কমিটির অনুমোদন দিয়েছেন জেলা ছাত্রদল। এতে আওয়ামী লীগ নেত্রী বেবী ইয়াছমিনের বিবাহিত ছেলে ও পুলিশ অ্যাসল্ট মামলার পলাতক আসামি এম. রিফাত বিন জিয়াকে করা হয়েছে আহ্বায়ক। তার বিরুদ্ধে রয়েছে একাধিক বিয়ের অভিযোগ। আর সদস্য সচিব করা হয়েছে ঢাকার বাসিন্দা ব্যবসায়ী মো. আমান উল্লাহকে। আমানের বিরুদ্ধে রয়েছে অছাত্রত্বের অভিযোগ। 

গত ২৪ জানুয়ারি বুধাবার এ কমিটি ঘোষণা করা হয়। ওইদিন রাতেই অবৈধ ও পকেট কমিটির বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে মিছিল বের করে রিগানের নেতৃত্বে ছাত্রদলের একটি গ্রুপ। রাত ১০টার দিকে মিছিল শেষে পথ সভা চলাকালে ওই কমিটিরই যুগ্ম আহ্বায়ক-২ মোস্তাকিমুর রহমান ও সরাইল সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মোস্তাক আহমেদ খন্দকার রিগানকে গ্রেফতার করে পুলিশ। 

দলীয় একাধিক সূত্র জানায়, এক বছর আগে সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি ভেঙ্গে দিয়েছে জেলা ছাত্রদল। গত এক বছরে কোন সভা ও সম্মেলন নেই। হঠাৎ করেই জেলা ছাত্রদল কর্তৃক অনুমোদিত দলীয় প্যাডে ২১ সদস্য বিশিষ্ট সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের একটি কমিটি ঘোষণা করা হয়। প্রতিবাদে রাজপথে নেমে পড়ে রিগানের নেতৃত্বে ছাত্রদলে একাংশের নেতা কর্মীরা। সকাল বাজার থেকে মিছিল করে হাসপাতাল মোড় হয়ে কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পথসভা করে। পথ সভায় তারা রিফাত ও আমানকে অছাত্র উল্লেখ করে এ কমিটিকে প্রত্যাখ্যান করে। সেই সাথে বক্তারা বলেন, রিফাতের মা বেবী ইয়াছমিন সরাইল উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্তমান আহ্বায়ক কমিটির ৩০ নম্বর সদস্য। রিফাত নিজ গ্রামে ও নবীনগরে ২টি বিয়ে করেছেন। এছাড়া আহ্বায়ক ও সদস্য সচিব দু’জনেরই ছাত্রত্ব নেই। রাত ১০টার দিকে ওই সভা থেকে পুলিশ রিগান মোস্তাকিনকে গ্রেফতার করেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে তারা জামিনে বেরিয়ে আসেন। 

সরাইল উপজেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি মো. ইসমাইল হোসেন উজ্জ্বল বলেন, গঠনতন্ত্র অনুযায়ী বিবাহিত অছাত্র ছাত্রদলের কমিটিতে আসতে পারে না। রিফাত একাধিক মামলার পলাতক আসামি। কমিটি গঠনে মোটা অংকের টাকা লেনদেন হয়েছে। 

জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক ফুজায়েল চৌধুরী বলেন, ছাত্রদলের গঠনতন্ত্রে কোন অছাত্র ও বিবাহিতের স্থান কমিটিতে নেই। সরাইলের কমিটিটি কেন্দ্রের নির্দেশে করা হয়েছে। আমরা এর বেশী কিছু জানি না। তবে এখন ফেসবুকে রিফাতের বিয়ের ছবি দেখা যাচ্ছে। আমাদের কাছে সুনির্দিষ্ট কোন প্রমাণও নেই।

বিডি-প্রতিদিন/সালাহ উদ্দীন

 


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর

প্রকাশ : ২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ২১:৪৭
প্রিন্ট করুন printer

বিনামূল্যে করোনার টিকা নিবন্ধন করে দিচ্ছে ‘স্লোগান’

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি

বিনামূল্যে করোনার টিকা নিবন্ধন করে দিচ্ছে ‘স্লোগান’

প্রযুক্তির বাইরে থাকা সাধারণ মানুষকে ভ্যাকসিন সেবার আওতায় আনতে বিনামূল্যে অনলাইনে নিবন্ধন করে দেওয়ার উদ্যোগ নিয়েছে ‘স্লোগান’ নামে এক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

নারায়ণগঞ্জ শহরের প্রাণকেন্দ্র চাষাঢ়া কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে গত এক সপ্তাহ ধরেই সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা অবধি বিনামূল্যে এই কাজটি করে যাচ্ছে সংগঠনটি।

সংগঠনের মুখপাত্র নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শেখ সাফায়েত আলম সানি বলেন, আমাদের শ্লোগান হচ্ছে ‘সোনার বাংলা গড়তে হলে সোনার মানুষ হই’। সেই সোনার মানুষ হওয়ার প্রত্যয় নিয়ে নতুন প্রজন্মের মধ্যে নৈতিকতা ও মানবিক গুণাবলীর বিকাশের মাধ্যমে সামাজিক দায়িত্ববোধ জাগিয়ে তুলতে এবং তাদের মধ্যে মননশীলতার বিকাশ ঘটাতে কাজ করে যাচ্ছে ‘স্লোগান’।

কর্মসূচিতে ‘স্লোগান’ সংগঠনের সদস্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আতাউর রহমান নান্নু, ফাহিম ভুইয়া এমিল, ইশতিয়াক আল কাফি নিশান, শেখ রফিকুল ইসলাম রায়হান, সাজ্জাদুল করীম চৌধুরী, আহমেদ হৃদয় ও রায়হান প্রিন্স প্রমুখ।

বিডি প্রতিদিন/এমআই


আপনার মন্তব্য

পরবর্তী খবর