শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ মার্চ, ২০২১ ১৪:২৮
প্রিন্ট করুন printer

ময়মনসিংহে সেপটিক ট্যাংকে পড়ে মা-ছেলে ৩ জনের মৃত্যু

ভালুকা (ময়মনসিংহে) প্রতিনিধি

ময়মনসিংহে সেপটিক ট্যাংকে পড়ে মা-ছেলে ৩ জনের মৃত্যু

ময়মনসিংহের ভালুকায় কারখানার সেপটিক ট্যাংক পড়ে মা-ছেলেসহ তিনজনের মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে উপজেলার ধীতপুর ইউনিয়নের বহুলি এলাকায় কারখানায়। 

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সেপটিক ট্যাংকের ঢাকনার ভাঙা অংশ দিয়ে বুধবার সন্ধ্যায় পড়ে যায় রোহিত বাগচি (৪) নামের এক শিশু। শিশুটিকে উদ্ধার করতে মা শ্রীমতি রানি বাগচিও (২৭) নামেন ট্যাংকের ভেতর। কিন্তু তারা উঠে না আসায় কারখানার শ্রমিক হৃদয় মিয়া (২২) ট্যাংকিতে নামেন তাদের উদ্ধার করতে। এরপর কেউ উঠে না আসায় কারখানার অন্য শ্রমিকরা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের খবর দেয়। পরে ভালুকা ও ত্রিশাল থানার পুলিশ এবং ত্রিশাল ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার অভিযান শুরু করেন। রাত ৮টার দিকে শিশু রোহিত, তার মা শ্রীমতি রানি ও নিরাপত্তাকর্মী হৃদয়ের লাশ উদ্ধার করা হয়।

শ্রীমতি রানি বাগচির বাড়ি রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার বলদি পুকুরপাড় এলাকায়। কারখানায় কাজ করতেন তিনি। তবে তাৎক্ষণিকভাবে কারখানার নিরাপত্তাকর্মী হৃদয় মিয়ার বিস্তারিত ঠিকানা পাওয়া যায়নি।

কারখানার ফিসারিজ এডমিন রাসেদুল ইসলাম সবুজ জানান, ‘এটি একটি অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা। আমরা আমাদের পক্ষ থেকে অসহায় পরিবারটির পাশে দাঁড়াবো।’   

ময়মনসিংহ ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়ন স্টেশন অফিসার আতিকুর রহমান জানান, ‘আমাদের ধারনা অতিরিক্ত বিষাক্ত গ্যাসে তাদের মৃত্যু হয়েছে।’


বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই বিভাগের আরও খবর