শিরোনাম
প্রকাশ : ৪ মার্চ, ২০২১ ২০:০৫
প্রিন্ট করুন printer

ভোলায় সন্ত্রাসী মুরাদের আরেক মামলায় ২০ বছর কারাদণ্ড

চরফ্যাশন (ভোলা) প্রতিনিধি

ভোলায় সন্ত্রাসী মুরাদের আরেক মামলায় ২০ বছর কারাদণ্ড

ভোলার চরফ্যাশনে ২১ মামলার আসামি সন্ত্রাসী মুরাদ হোসেনকে ২০ বছর ১ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন অতিরিক্ত ভোলা জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক। অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলার অপর আসামি আজিজ, ইউছুপ ও ফুয়াদকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার চরফ্যাশনে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. নুরুল ইসলাম এ রায় দেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৩ সালে চরফ্যাশন উপজেলা হাজিরহাট চোমুহনী খেয়া পারাপারের ইজারা নিয়ে মতিন মেম্বরের কাছে মুরাদ তার সহযোগীদের নিয়ে ২ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে। দাবিকৃত চাঁদা না পেয়ে মুরাদ তার সহযোগীদের নিয়ে মতিন মেম্বারকে প্রাণনাশের হুমকি দেয়। এই ঘটনায় আবদুল মতিন বাদী হয়ে ২০১৩ সালে  চরফ্যাশন থানায় মামলা দায়ের করে। 
অতিরিক্ত ভোলা জেলা ও দায়রা জজ আদালতে  চাঁদাবাজির মামলার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বৃহস্পতিবার বিচারক এই রায় ঘোষণা করেন। মুরাদ এ সময় আদালতে অনুপস্হিত  ছিল। মুরাদ হোসেন চরফ্যাশন আহম্মদপুর ইউনিয়নের আবুল বাসার চাপরাসীর ছেলে।                       

আসামিপক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট মো. ছিদ্দিক। রাষ্ট্রপক্ষের এডিশনাল পিপি মো. মোজাম্মেল হক বলেন, আলোচিত এই মামলার আসামি মুরাদ এলাকায় একজন দুষ্কৃতিকারী ও সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে চরফ্যাশনে বিভিন্ন থানার চাঁদাবাজী, ডাকাতি, ধর্ষণ ও প্রতারণসহ আরও ২১টি মামলা রয়েছে। আদালতে তার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় সে পলাতক রয়েছে। 

উল্লেখ্য, গত বছর ১৬ নভেম্বর চরফ্যাশনে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক আরেকটি মামলায় মুরাদের বিরুদ্ধে ২০ বছর ৪ মাসের কারাদণ্ড দিয়েছে।             

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর