শিরোনাম
প্রকাশ : ২০ মার্চ, ২০২১ ১৪:৫৬
প্রিন্ট করুন printer

সুন্দরবনে বাঘের অকাল মৃত্যু, ভিসেরা পাঠানো হচ্ছে ঢাকায়

বাগেরহাট প্রতিনিধি

সুন্দরবনে বাঘের অকাল মৃত্যু, ভিসেরা পাঠানো হচ্ছে ঢাকায়

বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের ধনচেবাড়িয়াচর এলাকার ভোলা নদীর চর থেকে উদ্ধার করা একটি মৃত রয়েল বেঙ্গল টাইগারের ময়নাতদন্ত শনিবার সকালে শরণখোলা রেঞ্জে সম্পন্ন হয়েছে। মোরেলগঞ্জ উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. জিএম আব্দুল কুদ্দুস মৃত বাঘটির ময়নাতদন্ত করেন। মৃত বাঘটি উদ্ধার হওয়ার ৫ দিন আগেই মারা যাওয়ায় লিভার ও হার্ট পঁচে গেছে। সেকারণে ময়নাতদন্তকালে বাঘটির মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে ঢাকায় ফরেনসিক ল্যাবে পরীক্ষার জন্য ভিসেরা সংগ্রহ করা হয়েছে।

ময়নাতদন্ত শেষে শরণখোলা রেঞ্জ অফিসে মৃত বাঘটিকে মাটি চাপা দিয়ে রাখা হয়েছে।

সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের ধনচেবাড়িয়ার চরে শুক্রবার রাত ৮টার দিকে স্থানীয়রা ওই মৃত বাঘ দেখতে পেয়ে সুন্দরবন বিভাগকে খবর দেয়। শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) মো.জয়নুল আবেদীন বনরক্ষীদের সাথে নিয়ে ঘটনাস্থল গিয়ে রাতেই বাঘটিকে রেঞ্জে নিয়ে আসে।

ইউনেস্কো ১৯৯৭ সালের ৬ ডিসেম্বর বাঘের আবাসস্থল সুন্দরবনকে ৭৯৮তম ওয়ার্ল্ড হ্যারিটেজ সাইট ঘোষণা করে। সর্বশেষ ২০১৮ সালের গণনায় সুন্দরবনে ১১৪ বাঘ রয়েছে। আর্ন্তজাতিক চোরা বাজারে বাঘের চামড়া, মাংস, অঙ্গ-প্রতঙ্গ ও হাড়ের উচ্চ মূল্য থাকায় চোরা শিকারীদের কারণে সুন্দরবনের বাঘ এখন অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে। গত ২০ জানুয়ারি বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলা সদরের  রায়েন্দা বাস স্ট্যান্ড এলাকা থেকে ক্রেতা সেজে সুন্দরবনের একটি পূর্ন বয়স্ক বাঘের চামড়াসহ মো. গাউস ফকির নামে এক চোরা শিকারীকে গ্রেফতার করে র‌্যাব সদস্যরা।

মোরেলগঞ্জ উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. জিএম আব্দুল কুদ্দুস জানান, একটি বাঘ সাধারণত ২০ থেকে ২৫ বছর বেচেঁ থাকে। তাই আনুমানিক ১৫ বছর বয়সের ৭ ফুট দৈর্ঘের প্রাপ্তবয়স্ক এই বাঘিনীটির অকাল মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে ভিসেরা সংগ্রহ করে ঢাকায় ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হচ্ছে। ফরেনসিক ল্যাবের রিপোর্ট পাওয়ার পরই বাঘটির মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে।

শরণখোলা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক (এসিএফ) মো. জয়নুল আবেদীন জানান, মৃত বাঘটির শরীরে কোন আঘাতের চিহ্ন নেই। বাঘটির মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে ভিসেরা ঢাকায় পাঠানো হবে। 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর