শিরোনাম
প্রকাশ : ২৯ মার্চ, ২০২১ ১২:৪৮
প্রিন্ট করুন printer

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলা চ্যানেল পাড়ি দিচ্ছেন ৯ সাঁতারু

টেকনাফ (কক্সবাজার) প্রতিনিধি

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলা চ্যানেল পাড়ি দিচ্ছেন ৯ সাঁতারু

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে কক্সবাজারের টেকনাফ-সেন্টমাটিন নৌপথে বঙ্গোপসাগরের বাংলা চ্যানেলে ৯ জন সাঁতারু বিশেষ সাঁতারে অংশ নিচ্ছেন। টেকনাফ-সেন্টমার্টিন নৌপথে এ স্রোত ধারাটির নাম বাংলা চ্যানেল। এরমধ্যে পাঁচজনের ডাবল সাঁতার (ডবল ক্রস) ও চারজনের একবার (সিঙ্গেল ক্রস) সাঁতার দেওয়ার কথা রয়েছে।

আজ সোমবার ভোর ৫টা ৫৫ মিনিটে সেন্টমার্টিন দ্বীপ থেকে পাঁচজন ডাবল সাঁতার (ডবল ক্রস)  শুরু করে দিয়েছেন। 
এ সাঁতারের আয়োজক ষড়জ অ্যাডভেঞ্চার ও এক্সট্রিম বাংলা।

ষড়জ অ্যাডভেঞ্চারের প্রধান নির্বাহী এবং রেকর্ডসংখ্যক ১৬ বার (এককভাবে সর্বোচ্চ পাড়ি দেওয়া সফল সাঁতারু) এ বাংলা চ্যানেল পাড়ি দেওয়া সাঁতারু লিপটন সরকার এ তথ্যটি  নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এবারের কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার শাহ্‌পরীরদ্বীপ থেকে সেন্টমার্টিন দ্বীপ পর্যন্ত ১৬.১ কিলোমিটার সমুদ্রপথ দুইবার (ডবল ক্রস) পাড়ি দিচ্ছেন পাঁচজন সাঁতারু।

সেন্ট মার্টিন–শাহ্‌পরীরদ্বীপ–সেন্ট মার্টিন দুইবার পাড়ি দেওয়ার জন্য সাঁতার শুরু করেছেন- সাঁতারু মো. মনিরুজ্জামান, মোহাম্মদ শামুসুজ্জামান আরাফাত, মো. সাইফুল ইসলাম রাসেল, মো. এরশাদ খান মুর্শেদ ও মো. রাব্বি রহমান। তারা আজ সোমবার ভোররাত ৫টা ৫৫ মিনিটে সময় সেন্ট মার্টিন থেকে সাঁতার শুরু করেছেন । তারা শাহপরীর দ্বীপ পৌঁছাবেন এরপর শাহপরীর দ্বীপ থেকে আবার সেন্টমার্টিনে উদ্দেশ্যে রওনা করবে। 

অন্যদিকে, আজ একইদিন সকাল ১০টার দিকে শাহ্পরীরদ্বীপ থেকে (সিঙ্গেল ক্রস) সাঁতার শুরু করে সেন্টমার্টিন যাবেন চারজন সাঁতারু। তারা হলেন পবিত্র কুমার দাশ, অর্ণব বিশ্বাস, দিপঙ্কর বিশ্বাস ও লিপটন সরকার। 

সাঁতারু  লিপটন সরকার বলেন, ‘স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আমরা কয়েকজন সাঁতারু এই বিশেষ আয়োজনে অংশ নিচ্ছি।’


বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই বিভাগের আরও খবর