শিরোনাম
প্রকাশ : ৩১ মার্চ, ২০২১ ১৯:৪৯
প্রিন্ট করুন printer

কুড়িগ্রামে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে আটক ১

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি:

কুড়িগ্রামে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে আটক ১

কুড়িগ্রামের উলিপুরে ধর্ষণের অভিযোগে এক ধর্ষককে আটক করেছে থানা পুলিশ। আটককৃত ধর্ষকের বিরুদ্ধে মঙ্গলবার বিকেলে শিশুটির বাবা মামলা করলে ধর্ষককে আটক করা হয়। আটক ধর্ষক মহুবর রহমান(৫০) উলিপুর উপজেলার গুনাইগাছ ইউনিয়নের রামধন দাশপাড়া গ্রামের মনির উদ্দিনের ছেলে। 

শিশুটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ২য় শ্রেণিতে অধ্যয়ণরত ছিল। ধর্ষিত ওই শিশুটি আহত হয়ে কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছে। পুলিশ বলেছে,শিশুটির ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে এবং ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার গুনাইগাছ ইউনিয়নের রামধন দাশপাড়া গ্রামে।

এলাকাবাসী ও থানা সুত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার দুপুরের পর ওই গ্রামের গৌরাঙ্গ চন্দ্র রায়ের শিশু কন্যার করোনায় বিদ্যালয়ে ক্লাস না থাকার সুবাদে পরিবারের নির্দেশে তার এক বান্ধবীসহ বাড়ির পাশে পরিত্যক্ত একটি জমিতে গরুর জন্য ঘাস আনতে যায়। এসময় আগে থেকে অবস্থান করা ধর্ষক মহুবর রহমান দুই শিশুকে দেখে তাদের কাছাকাছি আসে।কথা বলার এক পর্যায়ে ওই শিশু শিক্ষার্থীকে দিনে দুপুরে জাপটে ধরে।এরপর তার সাথে থাকা বান্ধবী ভীত হয়ে সেখান থেকে পাশে অপর এক বান্ধবীর বাড়িতে এসে ঘটনাটি তার বাবা-মাকে জানায়। এরই মধ্যে ধর্ষক মহুবর জোরপূর্বক শিশুটিকে একটি পানি নিষ্কাশনের নালায় ধরে নিয়ে উপর্যুপরি ধর্ষণ করে। এরপর তাকে সেখানে ফেলে দ্রুত সটকে পড়ে। এরপর শিশুটি গুরুতর আহত হয়ে বাসায় ফিরে পরিবারের লোকজনকে সব খুলে বলে। এ অবস্থায় শিশুটিকে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় কুড়িগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

এ ব্যাপারে উলিপুর থানার ওসি ইমতিয়াজ কবীর ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষিতাকে বুধবার আদালতে প্রেরণ করা হলে ধর্ষণের জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়। তবে বৃহস্পতিবার আদালতে আটক ধর্ষক মহুবর রহমানের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী গ্রহণ করা হবে।

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর