শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ এপ্রিল, ২০২১ ১৩:১০
প্রিন্ট করুন printer

সালথা উপজেলা পরিষদে হামলার ঘটনায় মামলা, ১৩ জন আটক

ফরিদপুর প্রতিনিধি

সালথা উপজেলা পরিষদে হামলার ঘটনায় মামলা, ১৩ জন আটক
গত রবিবার রাতে ফরিদপুরের সালথা উপজেলা পরিষদে হামলার ঘটনায় আগুনে পুড়ে যাওয়া গাড়ি। ছবি: সংগৃহীত
Google News

লকডাউন চলাকালে ফরিদপুরের সালথার ফুকরা বাজারে এসিল্যান্ডের সাথে স্থানীয়দের বাদানুবাদের সূত্র ধরে উপজেলা পরিষদে হামলা চালানো এবং পুলিশের উপর হামলার ঘটনায় মামলা হয়েছে। 

গতকাল মঙ্গলবার রাতে পুলিশের পক্ষ থেকে সালথা থানায় একটি মামলাটি দায়ের করা হয়। মামলাটি দায়ের করেন সালথা থানার এসআই মো. মিজানুর রহমান। মামলায় ৮৮ জনের নাম উল্লেখ করে এবং প্রায় ৪ হাজার অজ্ঞাত ব্যক্তিকে আসামি করা হয়েছে।
 
ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা জানান, উপজেলা পরিষদে হামলা চালিয়ে ভাংচুর, আগুন ও লুটপাটের ঘটনায় একটি মামলা হয়েছে। আরও কয়েকটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। 

গত সোমবার রাতে লকডাউনের প্রথম দিনে সরকারি নির্দেশনা পালন করতে গিয়ে জনতার সঙ্গে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও তার সহকারীদের ভুল বোঝাবুঝি হয়। তর্কে-বিতর্কে জড়িয়ে পড়ে স্থানীয়রা। একপর্যায়ে গুজব রটিয়ে উপজেলা পরিষদ, থানা ও উপজেলা চেয়ারম্যানের বাসভবনসহ বিভিন্ন অফিস ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগ করা হয়।

এ ঘটনায় পুলিশের সাথে হামলাকারীদের সংঘর্ষে জুবায়ের হোসেন নামের এক যুবক মারা যায়। এদিকে, হামলার ঘটনার পর পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১৩ জনকে আটক করে। 

এ ঘটনায় জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে ২টি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ২টি কমিটির প্রধান করা হয়েছে অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোসা. তাসলিমা আলী এবং অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) মো. আসলাম মোল্ল্যাকে।

বিডি প্রতিদিন/আবু জাফর

এই বিভাগের আরও খবর