শিরোনাম
প্রকাশ : ১৮ মে, ২০২১ ২০:১৯
প্রিন্ট করুন printer

রায়পুরায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩

নরসিংদী প্রতিনিধি

রায়পুরায় দুই গ্রুপের সংঘর্ষে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩
প্রতীকী ছবি
Google News

নরসিংদীর রায়পুরায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই দলের থেমে থেমে সংঘর্ষে শফিকুল ইসলাম  (২৫) নামে আরও এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় চলমান সংঘর্ষে তিনজনের মৃত্যু হলো।

মঙ্গলবার ভোরে ও বিকেলে উপজেলার পাড়াতলী ইউনিয়নের কাচারিকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এর আগে, সোমবার সন্ধ্যায় সংঘর্ষের সময় ইয়াছিন মিয়া নামে (১৩) আরেক শিশুর মৃত্যু হয়।

উপজেলার কাচারিকান্দি গ্রামের মেম্বার শাহ আলম ও সাবেক মেম্বার ফজলুর সমর্থকদের মধ্যে এ সংঘর্ষ ও হতাহতের ঘটনা ঘটে। এতে তিনজন গুলিবিদ্ধসহ আহত হয়েছেন অন্তত ২০ জন।

গুলিবিদ্ধ তিনজন হলেন-রুবেল, বাহক ও সাগর। তাদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহতরা হলেন-শহিদ মিয়া কাচারিকান্দি গ্রামের আশরাফ উদ্দিনের ছেলে, ইয়াছিন মিয়া নামে (১৩) ও নুরু মিয়ার ছেলে শফিকুল ইসলাম।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, এলাকার আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে রায়পুরা উপজেলার চরাঞ্চল পাড়াতলী ইউনিয়নের কাচারিকান্দী গ্রামের শাহ আলম মেম্বার ও সাবেক মেম্বার ফজলুর সমর্থকদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে সোমবার সন্ধ্যায় দুই দল সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এসময় উভয় গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া-পাল্ট ধাওয়াসহ গুলি বর্ষণের ঘটনা ঘটে।

এতে প্রতিপক্ষের ছোড়া গুলিতে ইয়াছিনের বুকে গুলিবিদ্ধ হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রায়পুরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তাকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। আহত হয় কমপক্ষে আরো ২০ জন। পরে চলমান সংঘর্ষে মঙ্গলবার সকালে প্রতিপক্ষের ছোড়া টেঁটা বিদ্ধ হয়ে মারা যায় শহিদ মিয়া (২৮) এবং বিকেলে শফিকুল ইসলাম নামে আরও একজনের মৃত্যু হয়।

নরসিংদীর সহকারী পুলিশ সুপার (রায়পুরা সার্কেল) সত্যজিৎ কুমার ঘোষ বলেন, সংঘর্ষের ঘটনায় এখন পর্যন্ত তিনজন নিহত হয়েছেন। মরদেহগুলো উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হচ্ছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন এবং বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এখন পর্যন্ত চারজনকে আটক করা হয়েছে।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর