শিরোনাম
প্রকাশ : ৭ জুলাই, ২০২১ ১৯:৫২
আপডেট : ৭ জুলাই, ২০২১ ২০:০০
প্রিন্ট করুন printer

বীরগঞ্জে কর্দমাক্ত রাস্তায় মানুষের চরম ভোগান্তি

দিনাজপুর প্রতিনিধি

বীরগঞ্জে কর্দমাক্ত রাস্তায় মানুষের চরম ভোগান্তি
বীরগঞ্জে কর্দমাক্ত রাস্তায় মানুষের চরম ভোগান্তি।
Google News

দিনাজপুরের বীরগঞ্জের প্রায় ৬ কিলোমিটার বৃষ্টির পানিতে কর্দমাক্ত মাটির রাস্তায় চলাচলে সাধারণ মানুষের ভোগান্তি চরমে উঠেছে। বর্ষার এই সময়ে দেখে মনে হবে রাস্তা যেন নয়, বোরো ধান রোপণের প্রস্তুতকৃত জমি। 

বীরগঞ্জ উপজেলা সদর থেকে ৪০ কিলোমিটার উত্তরে শিবরামপুর ইউনিয়ন পরিষদ থেকে মুরারীপুর বাজার হয়ে দেউলি রথবাজার পর্যন্ত প্রায় ৬ কিলোমিটার এই রাস্তাটি বেহাল।

ওই রাস্তায় রিকশা-ভ্যান, অটো চার্জার, নসিমন-করিমন, মোটরসাইকেল, প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস ও ট্রলি-ট্রাক্টর চলাচলেও ভোগান্তি চরমে। এছাড়া অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে রোগী বহনেও ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে। উৎপাদিত কৃষিপণ্য নিয়ে হাট-বাজারে যাতায়াতে পথচলা কঠিন হয়ে পড়েছে। সাধরণ মানুষ ও যানবাহন কেউই স্বাভাবিকভাবে চলাচল করতে পারছে না। রাস্তাটি চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

মুরারীপুর বাজার এলাকার ধীরেন চন্দ্র বর্মনসহ কয়েকজন জানায়, বিবাহ-আকিকাসহ বিভিন্ন সামাজিক অনুষ্ঠানে মালামাল পরিবহন করা খুব কষ্টকর। বর্ষার এই সময়ে দেখে মনে হবে রাস্তা যেন নয়, বোরো ধান রোপণের প্রস্তুতকৃত জমি। এই এলাকার মানুষের দীর্ঘদিনের দাবি রাস্তাটি পাকাকরণের।

বীরগঞ্জের শিবরমপুর ইউপি চেয়ারম্যান জনক চন্দ্র অধিকারী জানান, এই ইউনিয়নের অধিকাংশ মাটির রাস্তা দীর্ঘদিন ধরেই এই দুরবস্থায় চরম ভোগান্তি পোহাচ্ছে ইউনিয়নবাসী। ভোগান্তিতে পড়া সাধারণ মানুষ শুধু চেয়ারম্যানকেই ধরে কিন্তু আমার করার কী আছে। আমি বারবার উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার অফিসে এবং স্থানীয় সাংসদের মাধ্যমে রাস্তাগুলো জরুরি ভিত্তিতে মেরামত করার জন্য চাহিদাপত্র দিয়েছি এবং বলেছি। কিন্তু তারা ‘শিগগিরই হবে’ বলেই যাচ্ছেন কিন্তু হয় না।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

এই বিভাগের আরও খবর