শিরোনাম
প্রকাশ : ৮ জুলাই, ২০২১ ২১:২১
প্রিন্ট করুন printer

নিখোঁজ জেলে ১৩ বছর পর বাড়িতে

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি


নিখোঁজ জেলে ১৩ বছর পর বাড়িতে
মিলন আকন
Google News

বঙ্গোপসাগরে মাছ শিকার করতে গিয়ে নিখোঁজ জেলে মিলন আকনকে (৩০) দীর্ঘ ১৩ বছর পর ফিরে পেয়েছে তার পরিবার। বৃহস্পতিবার দুপুর দিকে তাকে কুয়াকাটার নিজ বাড়িতে নিয়ে আসেন। ঝড়ের কবলে মাছধরা ট্রলারসহ সাগরে ডুবে নিশ্চিত মারা যাবার খবরকে বিশ্বাস করার এক যুগ পর জেলে মিলন পরিবারের লোকজনের চোখেমুখে এখন আনন্দাশ্রু বইছে। তাকে বাড়িতে ফিরিয়ে আনার খবরে কৌতুহলী প্রতিবেশিসহ স্বজনরা একনজর দেখার জন্য এখন ভিড় করছে।   

স্থানীয় ও পারিবারিক সূত্রে জানা যায়, ২০০৮ সালে মিলন তার দুই সহযোগী জেলে ফারুক (১৩) ও খোকনকে (২৫) নিয়ে একটি মাছধরা নৌকায় ইলিশ শিকারের জন্য গভীর সমুদ্রে যায়। ওইদিন সাগরে ঝড়ের কবলে পড়ে নৌকাটি। এরপর থেকে তাদের আর কোন খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। নিখোঁজ তিন জেলে পরিবারের ধারণা ছিল এদের সকলের সলিল সমাধি ঘটেছে। সর্বশেষ দু’দিন আগে মঙ্গলবার তালতলী উপজেলায় একটি সড়কে তার স্বজনরা মিলনকে চিনতে পায়।

এরপর কুয়াকাটায় মিলনের পরিবারকে জানানো হয়। তারা সেখানে গিয়ে নিশ্চিত হবার পর বৃহস্পতিবার বাড়িতে নিয়ে আসা হয়। মিলনের পিতা শাহ-আলম আকন বলেন, তার ছেলেকে অনেক খোঁজা খুজি করেছি। দু'দিন আগে শুনতে পেলাম মিলন পার্শ্ববর্তী উপজেলা তালতলী রাস্তায় ঘোরা ফেরা করছে। এর পর আমি ও ওর মা সেখানে গিয়ে মিলনকে দেখে পুরোপুরি নিশ্চিত বাড়িতে নিয়ে এসেছি।

মিলনের মা মিনারা বেগম জানান, সাগরের পারে পারে ছেলেকে খুঁজেছি। কোথাও পাইনি। দীর্ঘ ১৩ বছর পর আমার বুকে  পাইছি। এতেই আমি আল্লার কাছে হাজার শুকরিয়া জানাই।

কুয়াকাটা পৌরসভার কাউন্সিলর মনির শরীফ বলেন, মিলন নামের ওই ছেলেটি ১৭ বছর বয়সে গত ২০০৮ সালে সাগরে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ হয়। বর্তমানে মিলন অসুস্থ থাকায় তার নিখোঁজ থাকার বিষয় কিছুই জানা যায়নি। তবে মিলনের সাথে অপর নিখোঁজ দুই জেলের এখনো কোন সন্ধান মেলেনি।

বিডি প্রতিদিন/আল আমীন

এই বিভাগের আরও খবর