৩০ জুলাই, ২০২১ ১৯:০৪

ভারতে তিন বছর কারাভোগের পর দেশে ফিরলেন ১০ নারী-পুরুষ

বেনাপোল (যশোর) প্রতিনিধি

ভারতে তিন বছর কারাভোগের পর দেশে ফিরলেন ১০ নারী-পুরুষ

ভুক্তভোগীরা বিভিন্ন সময় দালালের খপ্পরে পড়ে দেশের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে ভারতের ব্যাঙ্গালুর যান

বিভিন্ন সময় ভালো কাজের আশায় ভারতে গিয়ে আটক হওয়া ১০ বাংলােদেশি নারী-পুরুষকে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে ভারত সরকার। বৃহস্পতিবার রাতে ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে ৭ জন পুরুষ ও ৩ জন নারীকে বেনাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ।

ফেরত আসারা হলেন রোকসানা, মাহমুদা, গোলাপ মিয়া, সাকিব হোসেন, রাসেল মিয়া, আয়েশা, নাঈম, খোকন, সাগর, সাজু। তাদের বাড়ি খুলনা, নড়াইল ও নরসিংদী জেলার বিভিন্ন এলাকায়। তাদের গ্রহণ করেছে রাইটস যশোর ও জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার নামে দুটি এনজিও সংস্থা।

রাইটস যশোরের এনজিও সংস্থার ফিল্ড অফিসার তৌফিক জানান, ভুক্তভোগীরা বিভিন্ন সময় দালালের খপ্পরে পড়ে দেশের বিভিন্ন সীমান্ত দিয়ে ভারতের ব্যাঙ্গালুর যান। পরে সেখানকার পুলিশ তাদের আটক করে। এরপর তিন বছরের মেয়াদে সাজা হয় তাদের। পরবর্তীতে একটি এনজিও সংস্থা তাদের ছাড়িয়ে নিজেদের ‘শেল্টার হোমে’ রাখে। এরপর দুই দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে চিঠি চালাচালির একপর্যায়ে আজ তাদের ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে দেশে ফেরত আনা হয়েছে।

বেনাপোল চেকপোস্ট ইমিগ্রেশনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহসান হাবিব জানান, ৭ পুরুষ ও ৩ নারীকে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ ট্রাভেল পারমিটের মাধ্যমে আমাদের কাছে হস্তান্তর করেছে। কাগজপত্রের আনুষ্ঠানিকতা শেষে তাদের বেনাপোল পোর্ট থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। সেখান থেকে জাস্টিস অ্যান্ড কেয়ার ও রাইটস যশোর নামে দুটি এনজিও সংস্থা তাদের গ্রহণ করবে। যেহেতু তারা ভারতফেরত সেহেতু তাদের ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। তারপর তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। 

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

এই বিভাগের আরও খবর