৩১ জুলাই, ২০২১ ১৪:৪১

নেত্রকোনার সড়কে ঢাকামুখী মানুষের উপচে পড়া ভিড়

নেত্রকোনা প্রতিনিধি

নেত্রকোনার সড়কে ঢাকামুখী মানুষের উপচে পড়া ভিড়

১৪ দিনের লকডাউন শেষ হওয়ার আগেই শিল্পকারখানা খুলে দেয়ার খবরে নেত্রকোনায় ঢাকামুখী মানুষের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। আজ শনিবার সকাল থেকেই জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে ঢাকাগামী কর্মজীবী মানুষেরা বিরামহীন ছুটে চলেছেন রবিবার (১ আগস্ট) কর্মস্থলে যোগ দিতে। 

সকাল থেকেই শহরের প্রধান সড়কে দেখা গেছে ঢাকামুখী যাত্রীদের ভিড়। যান চলাচল বন্ধ জেনেও সন্তানসহ ব্যাগ মাথায় নিয়েই পায়ে হেঁটেই অনেক মানুষ রওনা দিয়েছেন ঢাকার উদ্দেশ্যে। চাকরি বাঁচাতে মানুষের এমন কষ্ট দেখে অনেককে ফিরিয়ে দিলেও কিছু কিছু মানুষকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হচ্ছে পুলিশ। 

শহরের রাজুর বাজার, তেরিবাজার, থানার মোড়, মোক্তারপাড়াসহ বিভিন্ন মোড়ে মোড়ে পুলিশের টহল চললেও ঢাকার উদ্দেশে রওনা হওয়া এসব মানুষদের আটকাতে পারছে না পুলিশ। মানুষের ভিড় সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে জেলা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। এমন অবস্থায় করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কা করছেন স্থানীয়রা।

যদিও প্রশাসন কঠোরভাবে মাঠে অবস্থাণ করায় এবং এক সপ্তাহের খাদ্য সহায়তা দেওয়ায় নেত্রোকোনা জেলার পৌর শহরে সিএনজি ও ইজিবাইক চলাচল অনেকটাই বন্ধ রয়েছে। যার ফলে শিল্পকারখানা খোলার খবরে চাকরি বাঁচাতেই পায়ে হেঁটে গন্তব্যে ছুটছেন ঢাকামুখী যাত্রীরা। 

ট্রাফিক পুলিশের জেলা কর্মকর্তা মো. সালাউদ্দিন কাজল জানান, আমাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা রয়েছে পরবর্তী নির্দেশনা না আসা পর্যন্ত লকডাউন বাস্তবায়ন রাখা। আমাদের পুলিশ সদস্যরাও সংক্রমণের ঝুঁকি নিয়েই মাঠে রয়েছেন। মানুষের সাথে মানবিক আচরণ করে বুঝিয়ে শুনিয়ে যথাসম্ভব তাদের ফিরিয়ে দেয়া হচ্ছে।

তিনি আরও জানান, তবে সাধারণ মানুষ অনেকেই আমাদের ফাঁকি দিয়ে অলিগলিতে ঘুরে চলে যাচ্ছেন। কান্নাকাটি করছেন চাকরি চলে যাওয়ার ভয়ে। এই জেলায় সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। মৃত্যুও বাড়ছে। এমন সময় মানুষের এভাবে বের হয়ে আসায় আমাদের জন্যও তাদের ফেরানো কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ছে। 


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর