৩১ জুলাই, ২০২১ ২২:২৫
গ্রেফতার ৪

মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হত্যার ঘটনায় ৪৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক, বরিশাল

মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হত্যার ঘটনায় ৪৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা

বরিশালের উজিরপুরে মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেন তালুকদার হত্যার ঘটনায় থানায় মামলা করা হয়েছে। এ মামলায় চারজনকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালকের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ। এদিকে মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হত্যার প্রতিবাদে কর্মপন্থা নির্ধারণে উপজেলার মুক্তিযোদ্ধারা এক সভা করেছেন।  

পুলিশ জানায়, দেলোয়ার হোসেন হত্যার ঘটনায় তার ছেলে তরিকুল ইসলাম জুয়েল তালুকদার বাদী হয়ে শনিবার সকালে ৩২ জনের নাম উল্লেখ এবং অজ্ঞাতনামা আরও ১০-১২ জনকে আসামি করে উজিরপুর থানায় একটি মামলা করেন।

এর আগে গত শুক্রবার বিকালে দেলোয়ার হোসেনের নামাজে জানাজা থেকে তিনজন এবং ওইদিন সকালে এক নারীকে আটক করে পুলিশ। ওই চারজনকে দেলোয়ার হত্যা মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে শনিবার কারাগারে পাঠায় পুলিশ। মামলার অন্যান্য আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলে জানিয়েছেন উজিরপুর থানার ওসি মো. আলী আর্শাদ।

এদিকে মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেন হত্যার প্রতিবাদে কর্মসূচি নির্ধারনে শনিবার বেলা ১১টায় উজিরপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় উজিরপুর, বাবুগঞ্জ ও আগৈলঝাড়া উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উজিরপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ডার আব্দুল ওয়াদুদ সরদারের সভাপতিত্বে এবং মুক্তিযোদ্ধা মো. হারুন অর রশিদের সঞ্চালনায় সভায় জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নেতা মহিউদ্দিন মানিক বীর প্রতীক, আ ন ম আব্দুল হাকিম, বাবুগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আনিসুর রহমান এবং আগৈলঝাড়া উপজেলার সহকারী কমান্ডার মো. হাবিব ভূঁইয়া সহ অন্যান্য বক্তব্য দেন। বক্তারা মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেন তালুকদারের হত্যায় জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার এবং ফাঁসির দাবি জানান। একই সাথে দেলোয়ার হত্যার ঘটনায় আগামী ৭ আগস্ট সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন করার সিদ্ধান্ত নেন তারা। পরে তারা উজিরপুর মডেল থানার ওসি আলী আর্শাদের সাথে সাক্ষাৎ করে আসনামিদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান। 

উল্লেখ্য, গত বৃহস্পতিবার সকালে উজিরপুরের বামরাইল ইউনিয়নের আটিপাড়া গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেন তালুকদার, তার ৩ ছেলে যথাক্রমে বিপ্লব, সোহাগ ও জুয়েল এবং বিপ্লবের স্ত্রী রোজিনাকে কুপিয়ে আহত করে প্রতিপক্ষের সন্ত্রাসীরা। স্থানীয়রা আহতের উদ্ধার করে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরক চিকিৎসক দেলোয়ার হোসেন তালুকদার মৃত ঘোষণা করেন। গুরুতর আহতাবস্থায় একই পরিবারের চারজনকে ঢাকায় পাঠান চিকিৎসকরা।  

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

 

এই বিভাগের আরও খবর