২ আগস্ট, ২০২১ ১৫:৫৬

বীরগঞ্জে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

দিনাজপুর প্রতিনিধি:

বীরগঞ্জে গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

দিনাজপুরের বীরগঞ্জে বৃষ্টি রানী রায় (১৯) নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। সোমবার দুপুরে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসাপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে পুলিশ। মৃত বৃষ্টি রানী রায় (১৯) বীরগঞ্জ উপজেলার শিবরামপুর ইউনিয়নের সিংহদানী গ্রামের পরিমল বর্মনের স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, গত ৬ মাস পূর্বে বীরগঞ্জ উপজেলার শিবরামপুর ইউপির সিংহদানী গ্রামের মহাদেব বর্মনের ছেলে পরিমল বর্মন (২২)এর সাথে একই উপজেলার সাতোর ইউপির ডাকেশ্বরী গ্রামের দিলিপ রায়ের মেয়ে বৃষ্টি রানী রায়ের সাথে বিয়ে হয়। গত রবিবার সন্ধ্যা আনুমানিক ৭টায় বৃষ্টি রানী রায় নিজ ঘরে শাড়িতে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে পরিমল বর্মন মোবাইল ফোনে তার শ্বশুর দিলিপ রায়কে জানান। সংবাদ পেয়ে দিলিপ রায় রাতেই মেয়ের বাড়িতে ছুটে যান এবং সোমবার সকালে বিষয়টি লিখিতভাবে বীরগঞ্জ থানাকে অবহিত করেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে সুরতহাল শেষে ময়না তদন্তের জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে।

হত্যা করা হয়েছে দাবি করে বৃষ্টি রানী রায়ের বাবা দিলিপ রায় জানায়, ফাঁসি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে জানালেও আমরা গিয়ে ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ দেখতে পাইনি। ইতিপূর্বে কয়েকবার বৃষ্টিকে স্বামী পরিমল বর্মন এবং শ্বাশুড়ি মিনতি বর্মন মারধর করেছে বলে তিনি দাবি করেন।

বীরগঞ্জ থানার ওসি মো. আব্দুল মতিন প্রধান জানান, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী এ বিষয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

বিডি প্রতিদিন/ মজুমদার 

এই বিভাগের আরও খবর