২৬ আগস্ট, ২০২১ ১৭:৩৪

আশুগঞ্জে ম্যাজিস্ট্রেট ও সার্জেন্ট পরিচয়ে চাঁদাবাজিকালে আটক ২

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি

আশুগঞ্জে ম্যাজিস্ট্রেট ও সার্জেন্ট পরিচয়ে চাঁদাবাজিকালে আটক ২

প্রতীকী ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে ম্যাজিস্ট্রেট ও সার্জেন্ট পরিচয়ে চাঁদাবাজিকালে দুই যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার (২৫ আগস্ট) দিবাগত রাতে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আশুগঞ্জ রেলগেইট এলাকায় গাড়ি থামিয়ে ম্যাজিস্ট্রেট ও সার্জেন্ট পরিচয়ে চাঁদাবাজি করার সময় তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- নবীনগর উপজেলার বড়াইল আলগাহাটির মোঃ দুলাল মিয়ার ছেলে মোঃ রাকিব মিয়া (৩০) ও আশুগঞ্জ উপজেলার দূর্গাপুর নজরপাড়ার শফিকুল ইসলাম ওরফে শুক্কুর আলীর ছেলে মোঃ জাহিদ হাসান (২৭)। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে আটকদের জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে। 

আশুগঞ্জ থানা পুলিশের ইন্সপেক্টর (তদন্ত) এইচ. এম. মনিরুল ইসলাম জানান, গতকাল বুধবার রাতে রাকিব ও জাহিদ ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের আশুগঞ্জ পেট্রোল পাম্প সংলগ্ন রেলগেইট এলাকায় একটি নীল রঙয়ের মোটরসাইকেল আড়াআড়িভাবে রেখে গাড়ির গতিরোধ করে। তারা একটি কলার গাড়ি (পিকআপ) আটক করে গাড়িতে অবৈধ মাল আছে উল্লেখ করে ২০ হাজার টাকা দাবি করে। এসময় রাকিব নিজেকে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং জাহিদ নিজেকে পুলিশের সার্জেন্ট বলে পরিচয় দেয়। টাকা না দিলে গাড়ি আটকিয়ে মামলা দেয়াসহ চালক ও ব্যবসায়ীকে গ্রেফতারের হুমকি দেয়। তাদের সাথে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে আশেপাশের স্থানীয় লোকজন ছুটে আসে। আটক রাকিব ও জাহিদ তাদের সাথেও নিজেদেরকে প্রশাসনের লোক বলে পরিচয় দেয়। কিন্তু জিজ্ঞসাবাদে সন্দেহ হওয়ায় স্থানীয় লোকজন পুলিশকে খবর দিলে তাদেরকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয়। 

আশুগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আজাদ রহমান জানান, আটক দুই যুবকের বিরদ্ধে পিকআপে থাকা কলা ব্যবসায়ী ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলা পূর্ব মেড্ডা তিতাসপাড়ার মোঃ আহাদ মিয়ার ছেলে মোঃ রহিম মিয়া বাদি হয়ে থানায় অভিযোগ দেন। উক্ত অভিযোগটি দন্ডবিধির ১৭০,৩৪২,৩৮৫ ও ৫০৬ ধারায় রজু করে আসামিদের আদালতে প্রেরণ করা হয়। বিজ্ঞ আদালত তাদেরকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।  


বিডি-প্রতিদিন/আব্দুল্লাহ আল সিফাত

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর