২৩ অক্টোবর, ২০২১ ১৬:১০

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর নির্বাচন; ভোটারদের দ্বারে দ্বারে প্রার্থীরা

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি

চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর নির্বাচন; ভোটারদের দ্বারে দ্বারে প্রার্থীরা

আর মাত্র ৯দিন পরেই চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ নিয়ে শহর জুড়ে চলছে নানা জল্পনা-কল্পনা, কে হবেন এই পৌর পিতা? প্রথম শ্রেণির এই পৌরসভা নির্বাচনে ৪ জন প্রার্থী মেয়র পদের জন্য লড়ছেন। এরা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের মো. মোখলেসুর রহমান, আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী স্বতন্ত্র প্রার্থী মোবাইল প্রতীকের সামিউল হক লিটন, স্বতন্ত্র প্রার্থী বিএনপি নেতা নারিকেল গাছ প্রতীকের মো. নজরুল ইসলাম ও স্বতন্ত্র জামায়াত নেতা জগ প্রতীকের মো. মোস্তাফিজুর রহমান মুকুল। 

অন্যদিকে ১৫টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৮৭ জন এবং সংরক্ষিত মহিলা ওয়ার্ডে ২২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। জানা গেছে, ১৯০৩ সালে চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌরসভা প্রতিষ্ঠিত হয় এবং ১৯৮৪ সালে প্রথম শ্রেণির পৌরসভায় উন্নীত হয়। পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৪৫ হাজার ৪৯৭ জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে নারী ভোটার ৭৪ হাজার ৬৫ জন এবং পুরুষ ভোটার ৭১ হাজার ৪’শ ৩২ জন। এদিকে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দিন-রাত প্রচার ও প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন প্রার্থীরা। পাড়া-মহল্লায় ঝুলছে পোস্টার এবং শহরের প্রতিটি অলিতে-গলিতে চলেছে মাইকিং। আর ছুটে চলেছেন মেয়রসহ কাউন্সিলর প্রার্থীরা, আর দিয়ে যাচ্ছেন নানান প্রতিশ্রুতি। 

স্থানীয়রা বলছেন, পৌরসভার উন্নয়নে যিনি সবচেয়ে ভালো কাজ করবেন এমন প্রার্থীকে এবার বেছে নিবেন তারা। তাদের মতে, বিগত সময়ে যারা মেয়র ছিলেন তারা তেমন কাজ করেননি। তারা শুধু এ পৌরসভায় দেনা রেখে গেছেন। শহরের বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দারা বলেন, বিগত সময়গুলোতে বিএনপি ও জামায়াত মনোনীত মেয়র প্রার্থী নির্বাচিত হওয়ায় শহরে উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। এখনো অনেক রাস্তাঘাট জরাজীর্ণ অবস্থায় পড়ে আছে, ভরে গেছে খানা-খন্দে। ড্রেনেজ ব্যবস্থা একেবারে নাজুক। রাস্তাগুলো অপ্রশস্ত, এগুলোর ব্যাপারে কোন ধরনের পরিকল্পনা নেই। বর্তমানে এটি একটি অপরিকল্পিত শহরে পরিণত হয়েছে। অধিকাংশ রাস্তায় বৈদ্যুতিক বাতি না থাকায় সন্ধ্যার পরই ভুতুড়ে অবস্থার সৃষ্টি হয়। এমনকি পৌরসভা-নিয়ন্ত্রিত হাটবাজার ও বাস টার্মিনালগুলোরও সংস্কার হয়নি। 

এদিকে অটোরিকসা চালক শরিফুল আলম ও রবিউল ইসলাম বলেন, অনেকেই অভিযোগ করেন যানজটের বিষয় নিয়ে। কিন্তু এর মূল কারণ, অনেক রাস্তা অপ্রশস্ত, একমুখী রাস্তা, এক রাস্তার সাথে অপর রাস্তার লিংক না থাকা এবং রাস্তার পাশে বাজার বসাতে রাস্তাগুলো সংকীর্ণ হয়ে পড়েছে। এমন প্রার্থীকে ভোট দেয়া উচিত যার দ্বারা পৌরসভার রাস্তাঘাটের উন্নয়ন হবে। প্রতিবারই ভোটাররা অংকে ভুল করার কারণে এ পৌরসভার কাঙ্খিত উন্নয়ন থেকে বঞ্চিত। এছাড়া পৌরসভায় এখনো বিদ্যুৎ ও পয়নিষ্কাশন সমস্যা রয়েছে বলেও স্থানীয়রা জানান। 

আর আগামী নির্বাচনে মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের কাছে এমন সমস্যা সমাধান করে নাগরিক সুবিধার শতভাগ নিশ্চিয়তা দিবেন তাদেরকে নির্বাচিত করবেন। অন্যদিকে জোর প্রচারে ব্যস্ত আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী মো. মোখলেসুর রহমান বলেন, প্রধানমন্ত্রী আমাকে নৌকার জন্য মনোনীত করেছেন, সারা দেশের মানুষ আওয়ামী লীগের উন্নয়নে বিশ্বাসী, তারা এ সরকারের উন্নয়নে ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকাকে বিজয়ী করছে। আর চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর এলাকার মানুষও নৌকাকে বিজয়ী করবে ইনশাল্লাহ। 

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর