১৭ নভেম্বর, ২০২১ ১৯:২৯

দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ৬

কুষ্টিয়া প্রতিনিধি

দুই প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধসহ আহত ৬

কুষ্টিয়ার দৌলতপুরে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পোস্টার টাঙ্গানোকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ ও জাসদের কর্মীদের মাঝে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এতে একজন গুলিবিদ্ধসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে একজনকে দৌলতপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় জাসদ মনোনীত মশাল প্রতীকের একটি নির্বাচনী অফিস ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার রামকৃষ্ণপুর ইউনিয়নের ভাগজোত বাজারে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার পর থেকে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। এ বিষয়ে উভয় পক্ষ পৃথক ভাবে থানায় অভিযোগ করার কথা বললেও দৌলতপুর থানার ওসি তা অস্বীকার করেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নির্বাচনের পোষ্টার টানানোকে কেন্দ্র করে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সিরাজ মন্ডল ও জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) মশাল প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল আজিজের সমর্থকদের মাঝে উত্তেজনা দেখা দেয়।

এ ঘটনার জের ধরে রাত ১১টার দিকে ভাগজোত বাজারে উভয় গ্রুপের লোকজনের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষের আয়নাল আলী নামে মশালের প্রতীকের এককর্মী গুলিবিদ্ধ এবং রামদার আঘাতে রাশেদ, হান্নান, আশিক, ইমদাদুল ও মন্টু নামে নৌকার দুই সমর্থক আহত হন। আহত আয়নালকে দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ভর্তি করা হয়েছে। এ সময় ভাগজোত বাজারে মশালের একটি নির্বাচনী অফিস ভাঙচুরের করা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে।

মশাল প্রতীকের প্রার্থী আব্দুল আজিজ বলেন, সোমবারও তার এক কর্মীকে মারধর করেছে নৌকা প্রতীকের কর্মীরা। মঙ্গলবার রাতে নৌকার সমর্থকরা তার মশাল প্রতীকের একটি নির্বাচনী অফিস ভাঙচুর করে। এ বিষয়ে বুধবার সকালে দৌলতপুর থানায় ও সংশ্লিষ্ট রিটার্নিং অফিসার বরাবর পৃথক দুটি লিখিত দুটি অভিযোগ করা হয়েছে।  

নৌকার প্রার্থী সিরাজ মন্ডল মশালের অফিস ভাঙচুরের কথা অস্বীকার করে বলেন, মশাল প্রার্থীর সমর্থকরা গুন্ডাপান্ডা নিয়ে নৌকার সমর্থকদের উপর অতর্কিত হামলা করে। হামলার সময় দামদা ও চাপাতি দিয়ে কুপিয়ে নৌকার ৫ কর্মীকে আহত হয়েছেন। এ সময় আতংক সৃষ্টি করতে মশালের লোকজন বেশ কয়েকটি ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটায়। এ বিষয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে।

দৌলতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ নাসির উদ্দীন বলেন, এ বিষয়ে তিনি অবগত নয়। এ ব্যাপারে থানায় কেউ লিখিত অভিযোগও করেননি।

বিডি প্রতিদিন/এএ

সর্বশেষ খবর