শিরোনাম
২ ডিসেম্বর, ২০২১ ০১:৫৩

রাস্তায় পড়েছিলেন সংজ্ঞাহীন বৃদ্ধা, করোনা সন্দেহে কাছে যায়নি কেউ

হাসপাতালে নিল পুলিশ

নাটোর প্রতিনিধি

রাস্তায় পড়েছিলেন সংজ্ঞাহীন বৃদ্ধা, করোনা সন্দেহে কাছে যায়নি কেউ

এই বৃদ্ধা করোনায় আক্রান্ত মনে করে, ভয়ে তার সহায়তায় কেউই এগিয়ে যাননি

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে বাক প্রতিবন্ধী অসুস্থ বৃদ্ধা নারীকে (৬৫) কেউ ছুঁয়ে দেখেনি। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত নাটোর শহরের হরিশপুরে ঢাকা-রাজশাহী আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় পড়েছিলে। সড়কের পাশে পড়ে থাকা বৃদ্ধাকে দেখতে উৎসুক জনতা ভিড় জমালেও মানবতার বিবেক জাগ্রত হয়নি তাদের। এ ঘটনা জানতে পেরে ঘটনাস্থলে যান নাটোর সদর থানা পুলিশের সদস্যরা।

পরে সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনসুর রহমান ও পুলিশ সদস্যদের সহায়তায় বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে মঙ্গলবার (৩০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় নাটোর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসার ব্যবস্থা হয়। এই বৃদ্ধা করোনায় আক্রান্ত মনে করে ভয়ে তার সহায়তায় কেউই এগিয়ে যাননি।

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনসুর রহমান জানান, সংজ্ঞাহীন অবস্থায় এক বৃদ্ধা শহরের হরিশপুরে রাস্তার পাশে পড়েছিলেন। তিনি অনেকক্ষণ সেখানে পড়ে থাকলেও করোনাভাইরাস সংক্রমণের ভয়ে কেউই তার কাছে ঘেঁষেননি। একপর্যায়ে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তিনি স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে বিষয়টি জানতে পান। বিষয়টি জানতে পেরে তিনি পুলিশের উদ্ধারকারী দল নিয়ে তৎক্ষণাৎ বৃদ্ধার কাছে ছুটে যায়। বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে নাটোর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করে দেন। 

ওসি আরও জানান, এখন পর্যন্ত বৃদ্ধার নাম-ঠিকানা জানা সম্ভব হয়নি। তার বিশদ পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে।

নাটোর আধুনিক হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা  মঞ্জুরুল ইসলাম জানান, ওই বৃদ্ধাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে বৃদ্ধার করোনার উপসর্গ নেই বলে মনে হলেও চিকিৎসার প্রয়োজনে তার করোনা পরীক্ষা করানো হবে।

ওসি মনসুর রহমান বলেন, করোনা মোকাবিলায় মানুষের বিবেক জাগ্রহ হওয়া দরকার। মানবিকতা বিবর্জিত হলে মহামারি সংকট আরও ঘনীভূত হবে। বৃদ্ধার নাম ও ঠিকানা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে। তাকে তার পরিবারের কাছে পৌঁচ্ছে দেওয়ার জন্য সকলের সহযোগিতা কামনা করছি।

বিডি প্রতিদিন/জুনাইদ আহমেদ

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর