১২ জানুয়ারি, ২০২২ ১৬:৫৪

জামিন পেলেন এবং গরুও ফেরত পেলেন সেই গোলাম হোসেন

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

জামিন পেলেন এবং গরুও ফেরত পেলেন সেই গোলাম হোসেন

নিজের গরু বিক্রি করে চুরির অভিযোগে মালিক জেলে! - বাংলাদেশ প্রতিদিনে এই শিরোনামে সংবাদ ও নিউজ টোয়েন্টিফোর টেলিভিশনে গত শুক্রবার অনুসন্ধানী প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সেই গরুর মালিক বৃদ্ধ গোলাম হোসেনসহ পাঁচ গরু ব্যবসায়ীকে জামিন দিয়েছেন আদালত। গত সোমবার দুপুরে আদালতে পাঁচ হাজার টাকা মুচলেকায় জামিন মঞ্জুর করেন ঠাকুরগাঁও অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট এস. রমেশ কুমার ডাগা।

গোলাম হোসেনের পক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট মো. ইমরান হোসেন চৌধুরী জামিনের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, গোলাম হোসেনের নামে একটি গরু চুরির মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছিলো। বিজ্ঞ আদালত ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গরুর মালিকানা যাচাইয়ের নির্দেশ দিয়েছিলো মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে। কিন্তু কর্মকর্তা মালিকানা যাচাই না করে বৃদ্ধ গোলাম হোসেনসহ পাঁচজনের বিরুদ্ধে রিমান্ডের আবেদন করেন। পরবর্তীতে বাদী নিজেই এসে এফিডেভিড করে বিজ্ঞ আদালতে একটা দরখাস্ত দেন যে, গরু তিনি দাবি করছেন না, গরুটি আসামির। এ গরু আর বাদীর গরুর গায়ের রঙ একই হওয়ায় নিজের গরু মনে করেছিলেন। পরে বিষয়টি বুঝতে পেরে গরুর মালিকানা ছেড়ে দেন।

বাংলাদেশ প্রতিদিন ও নিউজ টোয়েন্টিফোর টেলিভিশনের প্রতিবেদনটি বিজ্ঞ আদালতকে দেখানো হয় ও বাদীর কথা শুনে গরুসহ আসামিদের জামিন মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, গোলাম হোসেন ছেলের বিয়ে দেওয়ার জন্য চার হাজার টাকা অগ্রিম ও এক লাখ বিশ হাজার টাকা বাকিতে তার বাড়িতে পালন করা নিজের দুটি গরু ব্যবসায়ী হাসেম আলীসহ চারজনের কাছে বিক্রি করে দেন। ওই ব্যবসায়ীরা গরু দুটি গত সোমবার দিনাজপুরের বীরগঞ্জ উপজেলার মরিচা ইউনিয়নের গোলাপগঞ্জ বাজারে বিক্রির জন্য নিয়ে যান। এসব গরু চুরি করে এনেছেন বলে অভিযোগ ওঠে তাদের বিরুদ্ধে। পরে পুলিশ মালিক গোলাম হোসেনসহ ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় নিয়ে যান। পরে আদালতের মাধ্যমে আসামিদের কারাগারে পাঠানো হয়।

অপরদিকে মামলার বাদী আতাবুর রহমান তার গরু চুরি যাওয়ার বিষয়ে সদর থানায় মামলা করেন। উক্ত মামলায় দুইজন এজাহার ভুক্ত আসামিকে এখনো গ্রেফতার করা হয়নি।

 

বিডি প্রতিদিন/ফারজানা

এই রকম আরও টপিক

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর