শিরোনাম
১৪ জুন, ২০২২ ১৯:১৫

ঝিনাইদহের দুটি ইউনিয়নে ইভিএমে ভোট কাল

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহের দুটি ইউনিয়নে ইভিএমে ভোট কাল

ঝিনাইদহের ২টি ইউনিয়নে ইভিএভ পদ্ধতিতে শান্তিপূর্ণ পরিবেশের মধ্য দিয়ে ভোটগ্রহণের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সদর উপজেলার সুরাট ও পাগলাকানাই ইউনিয়নে বুধবার সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত ১৯টি কেন্দ্রে ৮৬টি কক্ষে ভোটররা তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। নির্বাচনে এই দুইটি ইউনিয়নে মোট ২৫ হাজার ২ শত জন ভোটার রয়েছে। এর মধ্যে সুরাটে পুরুষ ৫,৫৯১ জন ও নারী ৫,৪২৪ জনসহ মোট ভোটার সংখ্যা ১১,০১৫ জন এবং পাগলাকানাই ইউনিয়নে পুরুষ ৬,৯৬৬ জন ও নারী ৭,৩০৪ জনসহ মোট ভোটার  রয়েছে ১৪,২৭০ জন।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, দুইটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে মোট ৬ জন, সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১৯ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৬৫ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এরমধ্যে পাগলাকানাই চেয়ারম্যান পদে ২জন, সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১১ জন সাধারণ সদস্য পদে ৩১ জন এবং সুরাটে চেয়ারম্যান পদে ৪ জন,সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৮ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৩৪ জন প্রতিদ্বন্দ্বিতায় অংশ নিয়েছেন।

নির্বাচনে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এই ২ ইউপিতে দায়িত্ব পালন করবেন ৩৫৬ জন পুলিশ ও ৩২৩জন আনসার সদস্য। এছাড়াও ২৪ জন র‌্যাব সদস্য, ২ প্লাটুন বিজিবি, ৮ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ২জন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, ২টি স্ট্রাইকিং ফোর্স ও ৮ টি মোবাইল টিম সার্বক্ষণিক টহল দিবেন। এতথ্য নিশ্চিত করেছেন পুলিশ সুপার মো. মুতাসিরুল ইসলাম।

উল্লেখ্য, সীমানা জটিলতা মামলায় প্রায় ১১ বছর পর ঝিনাইদহ সুরাট ও পাগলাকানাই ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ২০১১ সালের এপ্রিল মাসে ঝিনাইদহ পৌরসভা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় এবং ২০১১ সালের জুন মাসে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সুরাট ও পাগলাকানাই ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। এদিকে ঝিনাইদহ সদর পৌরসভায় একই সাথে ১৫ জুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু গত ২ জুন নির্বাচনী আচরণ বিধি ভঙ্গের দায়ে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আব্দুল খালেকের প্রার্থিতা বাতিল করে প্রধান নির্বাচন কমিশন। এ বিষয়ে প্রার্থী হাইকোর্টে রিট আবেদন করলে ৮ জুন বাতিলের প্রজ্ঞাপন ১ মাসের জন্য স্থগিত করা হয়। যে কারণে নির্বাচনে সকল প্রকার আইনগত জটিলতা নিরসনের জন্য এ পৌরসভার নির্বাচনটি আপাতত স্থগিত করেছে ইসি।

বিডি প্রতিদিন/হিমেল

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর