২৭ মে, ২০২৪ ১৯:২৬
ঘূর্ণিঝড় রিমাল

পটুয়াখালীতে শতাধিক গ্রাম প্লাবিত, বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন পুরো জেলা

নিহত ২

পটুয়াখালী প্রতিনিধি

পটুয়াখালীতে শতাধিক গ্রাম প্লাবিত, বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন পুরো জেলা

ঘূর্ণিঝড় রিমালের প্রভাবে ঝড়ো বাতাসে গাছ উপড়ে পড়ে পটুয়াখালীর দুমকি ও বাউফলে দুই বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। সোমবার সকালে বাউফল উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন স্থানে একটি পরিত্যক্ত ঘরে চাপা পড়ে আবদুল করিম (৬৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। অপরদিকে, দুমকি উপজেলার পাঙ্গাশিয়া ইউনিয়নের নলদোয়ানী এলাকায় গাছ চাপা পড়ে জয়নাল হাওলাদার (৭০) নামে আরও এক বৃদ্ধ নিহত হয়।

এ ছাড়া রবিবার দিবাগত রাত ১২টার পর থেকে এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত জেলার সর্বত্রই বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন। বিদ্যুৎ না থাকায় মোবাইল নেটওয়ার্ক ও ইন্টারনেট সংযোগে দিনভর বিভ্রাট দেখা দিয়েছে।

এ ছাড়াও রেকর্ড পরিমাণ ভারী বৃষ্টিপাত হয়েছে। জলোচ্ছ্বাসে দফায় দফায় প্লাবিত হয়েছে চরাঞ্চলসহ জেলার শতাধিক গ্রাম। তলিয়ে গেছে পৌরসভাসহ জেলার নিম্নাঞ্চল। এছাড়া গতকাল কলাপাড়ায় এক যুবক নিহত হয়েছেন। রিমালের প্রভাবে পটুয়াখালীতে মোট তিনজন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন ত্রাণ ও পুনর্বাসন কর্মকর্তা সুমন চন্দ্র দেবনাথ।

তিনি জানান, পানিতে প্লাবিত হয়ে ও ঝড়ো বাতাসে জেলায় মোট ২৩৫টি আধাপাকা ও কাঁচা ঘরবাড়ি সম্পূর্ণ বিধ্বস্ত হয়েছে। আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তিন হাজার ৫০০টি ঘরবাড়ি। এর মধ্যে বিচ্ছিন্ন দ্বীপচর রাঙ্গাবালী উপজেলা ও কলাপাড়া সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বহু গাছপালা উপড়ে পড়েছে। তবে তার সঠিক তথ্য জানা যায়নি।

এ ছাড়াও জলোচ্ছ্বাসে জেলার বেশির ভাগ উপজেলায় বেশ কিছু পয়েন্টে বেড়িবাঁধ সম্পূর্ণ ও আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে কী পরিমাণ বেড়িবাঁধ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে, তার তথ্য পাওয়া যায়নি।

বিডি প্রতিদিন/এমআই

সর্বশেষ খবর