Bangladesh Pratidin || Highest Circulated Newspaper
শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ১ মে, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ৩০ এপ্রিল, ২০১৯ ২৩:৪২

বন্দুকযুদ্ধে চার জেলায় নিহত ৫

প্রতিদিন ডেস্ক

বন্দুকযুদ্ধে চার জেলায় নিহত ৫

চার জেলায় পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে পাঁচজন নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে কক্সবাজারে দুইজন, সিরাজগঞ্জ একজন, মাদারীপুর একজন ও চাঁপাইনবাবগঞ্জে একজন রয়েছে। আমাদের প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর-

কক্সবাজার : কুতুবদিয়ায় দুই জলদস্যু বাহিনীর গোলাগুলির ঘটনায় দুজন নিহত হয়েছে। সোমবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নের লুইজ্জার বিলে এ ঘটনা ঘটে। মোহাম্মদ এরফান হোসেন ও মোহাম্মদ কালুর নেতৃত্বাধীন দুই জলদস্যু বাহিনীর সংঘর্ষে পলাশ বড়ুয়া নামের এক পুলিশ সদস্য আহত হন। নিহত ব্যক্তিরা হলেন- মোহাম্মদ এরফান হোসেন ওরফে এরফান মাঝি (৩৫) ও মোহাম্মদ নুর হোছন (২৬)। পুলিশের দাবি, মোহাম্মদ এরফান হোসেন ওরফে এরফান মাঝি উপকূলের জলদস্যু সর্দার। তিনি সাগরে জলদস্যুতার পাশাপাশি সমুদ্রপথে ইয়াবা পাচার করে আসছিলেন। আর মোহাম্মদ নুর হোছন জলদস্যুতার পাশাপাশি মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। কুতুবদিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ দিদারুল ফেরদাউস বলেন, বন্দুকযুদ্ধের ঘটনায় দুই জলদস্যু নিহত হয়েছেন। কুতুবদিয়া থানার পুলিশের ভাষ্যমতে, এলাকায় আধিপত্য বিস্তার ও লুণ্ঠিত মালামাল ভাগ-বাটোয়ারাকে কেন্দ্র করে মোহাম্মদ কালু ও মোহাম্মদ এরফান হোসেনের বাহিনীর মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ চলছিল। খবর পেয়ে কুতুবদিয়া থানার ওসি মোহাম্মদ দিদারুল ফেরদাউসের নেতৃত্বে একদল পুলিশ উপজেলার আলী আকবর ডেইল ইউনিয়নের ফতেয়ালি সিকদারপাড়া সংলগ্ন লুইজ্জার বিল এলাকায় অভিযান চালান। জলদস্যুরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। পরে ঘটনাস্থল থেকে দেশে তৈরি একটি বন্দুক, চারটি গুলির খোসা, ৪০০টি ইয়াবাসহ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় দুই জলদস্যুকে উদ্ধার করে পুলিশ। গুলিবিদ্ধ দুই জলদস্যুকে পুলিশ কুতুবদিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করে। সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জে মাদক ব্যবসায়ীর দুই গ্রুপের মধ্যে গোলাগুলিতে নুরুল ইসলাম মোহন (৫৫) নামে একজন নিহত হয়েছে। গতকাল ভোরে চর রায়পুর রেলওয়ে স্টেশন এলাকা থেকে লাশ উদ্ধার করা হয়। জেলা গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওয়াহেদুজ্জামান জানান, সোমবার মধ্য রাতে সদর উপজেলার রায়পুর স্টেশন এলাকায় দুই গ্রুপ মাদক ব্যবসায়ী নিজেদের মধ্যে মাদক ও টাকা ভাগাভাগি নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়েছে সংবাদের ভিত্তিতে গোয়েন্দা পুলিশের একটি টহল টিম ও সদর থানা পুলিশ ঘটনা স্থলে যায়। পুলিশ গুলিবিদ্ধ অবস্থায় মোহনকে পড়ে থাকতে দেখে তাকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

মাদারীপুর : কালকিনিতে র‌্যাবের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে একাধিক মাদক মামলার আসামি ও মাদক ব্যবসায়ী জহির উদ্দিন জোক্কা নিহত হয়েছে। সোমবার গভীর রাতে কালকিনির কয়ারিয়া ইউনিয়নের উত্তর চরাইকান্দি এলাকা থেকে তার মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। র‌্যাব-৮ জানান, সোমবার গভীর রাতে কালকিনি উপজেলার উত্তর চরাইকান্দি এলাকায় একাধিক মাদক মামলার আসামি জহির উদ্দিন জোক্কাকে (৪২) আটক করে র‌্যাব-৮ এর বরিশাল ক্যাম্প। পরে র‌্যাবের সদস্যরা এসআই শফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে জোক্কাকে নিয়ে অন্য মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতারে বিশেষ অভিযান চালায়। উত্তর চরাইকান্দি এলাকায় এলে র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা র‌্যাবকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে। র‌্যাবও পাল্টা গুলি ছুড়লে মাদক ব্যবসায়ীরা ছত্রভঙ্গ হয়ে যায়। পরে একটি মাঠে জহির উদ্দিন জোক্কার গুলিবিদ্ধ লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। র‌্যাব লাশ উদ্ধার করে মাদারীপুর মর্গে পাঠান। নিহত মাদক ব্যবসায়ী জহির উদ্দিন জোক্কার বিরুদ্ধে মাদারীপুরের কালকিনি, বরিশালের গৌরনদী থানায় মাদক ব্যবসাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। তিনি কালকিনি উপজেলার কয়ারিয়া ইউনিয়নের চরাইকান্দি গ্রামের সোবাহান খানের ছেলে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জের বারঘরিয়া পুলপাড়ায় শীর্ষ সন্ত্রাসী বাঘা (৩৫) পুলিশের গুলিতে নিহত হয়েছে। গতকাল বিকাল ৪টার দিকে বারঘরিয়া পুলপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানায়, চাঞ্চল্যকর আরজু হত্যা মামলাসহ দুটি হত্যা এবং অস্ত্র ও বিস্ফোরকসহ ১৮ মামলার আসামি শীর্ষ সন্ত্রাসী বাঘা দীর্ঘদিন ধরে পলাতক ছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সদর মডেল থানা পুলিশ গতকাল বিকাল ৪টার দিকে বাঘাকে গ্রেফতার করে তার সহযোগীদের গ্রেফতারের জন্য তাকে নিয়ে পুলপাড়ায় অভিযান চালায়। এ সময় সহযোগীরা পুলিশের ওপর হামলা চালালে বাঘা পালানোর চেষ্টা করে। পুলিশ শর্টগানের গুলি ছুড়লে বাঘা গুলিবিদ্ধ হয়। পরে বাঘাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে সন্ধ্যা ৬টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বাঘা মারা যায়।


আপনার মন্তব্য