শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ২ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ২৩:৩৭

দক্ষিণে ২৯, উত্তরে ২৫.৩০ শতাংশ ভোট পড়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক

ঢাকা উত্তর-দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে এবার গড় ভোট পড়ার হার ২৭ দশমিক ১৫ ভাগ। এর মধ্যে উত্তরে ২৫ দশমিক ৩০ ভাগ ও দক্ষিণে ২৯ দশমিক শূন্য দুই ভাগ। ২০১৫ সালের নির্বাচনে ঢাকা উত্তর সিটিতে ভোট পড়েছিল ৩৭ দশমিক ৩০ ভাগ এবং দক্ষিণ সিটিতে ভোটের হার ছিল ৪৮ দশমিক ৪০ ভাগ। বেসরকারি ফলাফলে দক্ষিণে আওয়ামী লীগের বিজয়ী মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস মোট ভোট পেয়েছেন ৪ লাখ ২৪ হাজার ৫৯৫। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির ইশরাক হোসেন ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২ লাখ ৩৬ হাজার ৫১২ ভোট।

অন্যদিকে উত্তর সিটির আওয়ামী লীগের বিজয়ী মেয়র আতিকুল ইসলাম মোট ভোট পেয়েছেন ৪ লাখ ৪৭ হাজার ২১১। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির তাবিথ আউয়াল ধানের শীষ প্রতীকে পেয়েছেন ২ লাখ ৬৪ হাজার ১৬১ ভোট। ২০১৫ সালের ২৮ এপ্রিলের ভোটে ঢাকা উত্তরে টেবিলঘড়ি প্রতীকের প্রয়াত আনিসুল হক পেয়েছিলেন ৪ লাখ ৬০ হাজার ১১৭ ভোট এবং তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী বাস প্রতীকে তাবিথ আউয়াল পেয়েছিলেন ৩ লাখ ২৫ হাজার দশমিক ৮০ ভোট। ঢাকা দক্ষিণে ইলিশ মাছ প্রতীকে সাঈদ খোকন পেয়েছিলেন ৫ লাখ ৫৩ হাজার ২৯৬ ভোট এবং মগ প্রতীকে প্রতিদ্বন্দ্বী মির্জা আব্বাস পেয়েছিলেন ২ লাখ ৯৪ হাজার ২৯১ ভোট। ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে প্রত্যাশার চেয়ে অনেক কম ভোট পড়েছে জানিয়ে নির্বাচন কমিশনের সিনিয়র সচিব মো. আলমগীর বলেছেন, এর কারণ জানতে গবেষণা করতে হবে। সিটি নির্বাচনে সরকারি দলের অনেকেই (আওয়ামী লীগ) ভোট দিতে যাননি বলেও মন্তব্য করেন তিনি। গতকাল নির্বাচন ভবনে ভোটের ফল নিয়ে সাংবাদিকদের কাছে এ প্রতিক্রিয়া জানান তিনি। 

উত্তরের অন্য মেয়র প্রার্থীদের ফলাফল : বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) প্রার্থী আহাম্মদ সাজেদুল হক রুবেল (কাস্তে) পেয়েছেন ১৫ হাজার ১২২, প্রগতিশীল গণতান্ত্রিক দলের (পিডিপি) শাহীন খান (বাঘ) পেয়েছেন ২ হাজার ১১১, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের শেখ মো. ফজলে বারী মাসউদ (হাতপাখা) পেয়েছেন ২৮ হাজার ২০০ ও ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) প্রার্থী আনিসুর রহমান দেওয়ান (আম) পেয়েছেন ৩ হাজার ৮৫৩ ভোট।

দক্ষিণের অন্য মেয়র প্রার্থীদের ফলাফল : জাতীয় পার্টির হাজী মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন মিলন (লাঙ্গল) পেয়েছেন ৫ হাজার ৫৯৩, ইসলামী আন্দোলনের আবদুর রহমান (হাতপাখা) পেয়েছেন ২৬ হাজার ৫২৫, ন্যাশনাল পিপলস পার্টির (এনপিপি) বাহরানে সুলতান বাহার (আম) পেয়েছেন ৩ হাজার ১৫৫, বাংলাদেশ কংগ্রেসের আকতার-উজ্জামান ওরফে আয়াতুল্লাহ (ডাব) পেয়েছেন ২ হাজার ৪২১ এবং গণফ্রন্টের আবদুস সামাদ সুজন (মাছ) পেয়েছেন ১২ হাজার ৬৮৭ ভোট।


আপনার মন্তব্য