শিরোনাম
প্রকাশ : মঙ্গলবার, ২০ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০ টা
আপলোড : ১৯ অক্টোবর, ২০২০ ২৩:৪৭

রূপপুর বালিশকান্ডের তিন মামলা ছয় মাসের মধ্যে নিষ্পত্তির নির্দেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক

পাবনার রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের একটি ভবনের জন্য অস্বাভাবিক দামে আসবাব ও অন্যান্য সামগ্রী কেনা সংক্রান্ত (বালিশকান্ড) দুর্নীতির তিন মামলার তদন্ত কার্যক্রম আগামী ছয় মাসের মধ্যে সম্পন্ন করতে তদন্ত কর্মকর্তাকে নির্দেশ দিয়েছে হাই কোর্ট।

গতকাল বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি আহমেদ সোহেলের সমন্বয়ে গঠিত ভার্চুয়াল হাই কোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেয়। এ ছাড়া রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ প্রকল্পের উপ-সহকারী প্রকৌশলী শফিকুল ইসলামকে তিন মামলায় জামিন দেয়নি হাই কোর্ট। পাশাপাশি তার জামিনের বিষয়ে জারি করা রুল ছয় মাসের জন্য মুলতবি রাখা হয়েছে। আদালতে দুদকের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক ও সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল মাহজাবিন রাব্বানী দীপা। আরেক আসামি শফিকুলের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী সাঈদ আহমেদ রাজা। প্রসঙ্গত, ২০১৭-১৮ অর্থবছরে রূপপুরে বালিশকান্ডের দুর্নীতির ঘটনা ঘটে। পরে রূপপুর বিদ্যুৎ প্রকল্পের বালিশকান্ডে জড়িত গণপূর্ত অধিদফতরের সাবেক নির্বাহী প্রকৌশলী মোহাম্মদ মাসুদুল আলমসহ ৯ জনকে আসামি করে দুদকের পাবনার উপ-পরিচালক মো. নাসির উদ্দিন গত ১২ ডিসেম্বর মামলা দায়ের করেন। পাশাপাশি প্রকল্পের ১৩ প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে আলাদা চারটি মামলা করে দুদক। দুদকের উপ-পরিচালক নাসির উদ্দিন ও উপ-সহকারী পরিচালক শাহজাহান মিরাজ বাদী হয়ে পাবনায় দুদকের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে এ চারটি মামলা করেন।


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর