শিরোনাম
প্রকাশ : সোমবার, ১২ এপ্রিল, ২০২১ ০০:০০ টা
আপলোড : ১১ এপ্রিল, ২০২১ ২৩:০৩

মিয়ানমারে এক দিনেই ৮২ বিক্ষোভকারীকে গুলি করে হত্যা

প্রতিদিন ডেস্ক

Google News

মিয়ানমারে গত শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে শনিবার ভোর পর্যন্ত নিরাপত্তা বাহিনী ৮২ বিক্ষোভকারীকে গুলি করে হত্যা করেছে। সামরিক জান্তাবিরোধী বিক্ষোভকারীদের গড়ে তোলা ব্যারিকেড অপসারণ করতে গিয়ে মধ্যাঞ্চলীয় শহর বাগোতে এ তান্ডব চালানো হয়। সূত্র : বিবিসি, রয়টার্স।

পর্যবেক্ষক সংস্থা অ্যাসিস্ট্যান্স অ্যাসোসিয়েশন ফর পলিটিক্যাল প্রিজনার্স (এএপিপি) জানিয়েছে, সব মিলিয়ে ২০২১ সালের ১ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভ্যুত্থানের পর সেনারা এখন পর্যন্ত কয়েক ডজন শিশুসহ সাত শতাধিক মানুষকে হত্যা করেছে। আটক করে রাখা হয়েছে হাজার হাজার মানুষকে। তবে জান্তা সরকারের মুখপাত্র মেজর জেনারেল জাও মিন তুন এ সপ্তাহে এক সংবাদ সম্মেলনে জানিয়েছেন, তারা ২৪৮ বেসামরিক এবং ১০ পুলিশ সদস্য নিহতের ঘটনা রেকর্ড করেছেন। শুক্রবারের বর্বরোচিত হত্যাযজ্ঞকে গণহত্যার সঙ্গে তুলনা করেছেন বিক্ষোভকারীদের একজন সংগঠক ইয়ে হিট। শনিবার জাতিসংঘ জানিয়েছে, বেসামরিক নাগরিকদের বিরুদ্ধে ভারী অস্ত্রশস্ত্র ব্যবহার এবং আহতদের চিকিৎসা না দেওয়ার বিষয়ে নজর রাখছে। অবিলম্বে সহিংসতা বন্ধ এবং আহতদের জন্য মেডিকেল টিমগুলোকে কাজের সুযোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বাগো শহরের এক বাসিন্দা বলেন, ‘আমাদের মানুষেরা বুঝতে পেরেছিল তারা (নিরাপত্তা বাহিনী) আসতে পারে। আর এ জন্য রাতভর অপেক্ষায় ছিল। সেনা সদস্যরা ভারী অস্ত্র ব্যবহার করেছে। আমরা মর্টার শেলও পেয়েছি। মেশিনগান দিয়েও প্রচুর গুলি করা হয়েছে। তাজা গুলি ছাড়াও সেনা সদস্যরা গ্রেনেড লঞ্চার ব্যবহার করেছে।’

খবরে বলা হয়, নিহতদের মরদেহ সেনাবাহিনী নিয়ে গেছে। ফলে মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা হয়তো কখনো সঠিকভাবে জানা যাবে না। প্রত্যক্ষদর্শীরা  দেশটির গণমাধ্যমকে বলেছেন, সৈন্যরা ভারী অস্ত্র ব্যবহার করছিল এবং নড়াচড়া করে এমন যে কোনো কিছুর ওপরই গুলি চালিয়েছে।