শিরোনাম
প্রকাশ : বুধবার, ২৭ মার্চ, ২০১৯ ০০:০০ টা
আপলোড : ২৬ মার্চ, ২০১৯ ২৩:৩১

হেলথ কর্নার

‘কৃমির প্রতিকার’

‘কৃমির প্রতিকার’

কৃমি অনেক রকমভাবেই মানুষের শরীরে প্রবেশ করতে পারে। হঠাৎ হঠাৎ পেটে ব্যথা বা মাথার যন্ত্রণা করে, সারা দিন শরীরে অস্বস্তিবোধ লেগে থাকে, তখনই বুঝতে হবে কৃমি শরীরে বাসা বেঁধেছে। এটি বোঝার আরও কতগুলো উপসর্গ রয়েছে যেমন:- অস্থিরতা, অকারণে অতিরিক্ত চিন্তা, অবসাদে ভোগা, আত্মহত্যাপ্রবণ হওয়া, মিষ্টিজাতীয় খাবার খাওয়ার অতিরিক্ত ইচ্ছা, রক্তস্বল্পতা এবং আয়রন ডেফিশিয়েন্সি ইত্যাদি।

কৃমি থাকলে শরীরে রক্তের পরিমাণ কমতে কমতে অ্যানিমিয়া পর্যন্ত চলে যেতে পারে। মাড়ি থেকে রক্তপাতও হতে পারে। অকারণে চুলকানি হওয়া ইত্যাদি রোগ ও হয়ে থাকে। মেয়েদের ক্ষেত্রে মাড়িতেও সমস্যা হতে পারে। জন্ডিসের ভাব হতে পারে, অনেকে অকারণে ক্লান্ত হয়ে পড়ে। গা হাত-পা ব্যথা করতে থাকে। এ ছাড়া, আরও অনেক উপসর্গ থাকতে পারে।

পেটে কৃমি দেখা গেলে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী এন্টিবায়োটিক খেতে হবে। কাঁচা রসুনও এন্টিবায়োটিকের কাজ করে। এ ছাড়া লবঙ্গ অনেক উপকারী, ঘরোয়া আরও অনেক পদ্ধতি রয়েছে, যেমন-আদা, আদা হজমের সব রকমের সমস্যা  সারতে সক্ষম। এ ছাড়া অ্যাসিডিটি, পেটে ইনফেকশন ইত্যাদিও আদা দূর করতে পারে।

এ সমস্যাগুলোও কৃমি দ্বারা তৈরি হয়। আরও একটি উপাদান হলো পেঁপে, পেটের সমস্যা দূর করতে এর উপকারিতা অনেক।

ডা. সামিয়া তাসনিম ইরাম


আপনার মন্তব্য