শিরোনাম
প্রকাশ : ৩০ জুন, ২০২০ ১৪:৪৯

করোনাকালে সন্তান না নেওয়ার আহ্বান মিশর সরকারের

অনলাইন ডেস্ক

করোনাকালে সন্তান না নেওয়ার আহ্বান মিশর সরকারের

করোনাভাইরাস মহামারীর সময়ে সন্তান না নিতে নারীদের আহ্বান জানিয়েছে মিশর সরকার। দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে এ আহ্বান জানায়। খবর আরব নিউজের।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ মহামারী সময়ে সন্তান নেওয়ায় বিলম্ব করা দরকার। নতুন পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, করোনাভাইরাস আক্রান্তের ফলে অনেক ক্ষেত্রে শরীরে রক্ত জমাট বেঁধে যায়। এতে গর্ভধারণ থলি ও ভ্রূণের পুষ্টি জোগানে ব্যাঘাত ঘটতে পারে।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, গর্ভধারণের ফলে পরোক্ষভাবে নারীর ইমিউন সিস্টেম দুর্বল হয়ে যায়। ফলে গর্ভবতী নারীদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে পড়ার অধিক সম্ভাবনা তৈরি হয়।

“আপাতকালীন সময়ে গর্ভবতী হওয়া রোধে জন্মনিয়ন্ত্রণ পদ্ধতিগুলো ব্যবহার করা যেতে পারে।”

সন্তানসম্ভবা নারীদের উদ্দেশে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে বলা হয়েছে, গর্ভকালীন সময়ে তাদের প্রাণবন্ত থাকতে হবে, আরাম করতে হবে এবং বিশ্রাম নিতে হবে। তাদের শারীরিক ব্যায়ামের জন্য হাঁটা হতে পারে সর্বোত্তম উপায়। তবে এখন যেহেতু করোনাভাইরাস মহামারী চলছে তাই অতি প্রয়োজন ছাড়া বাইরে না যাওয়ার জন্য পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

মিশরের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় আরও জানিয়েছে, বিভিন্ন ধরনের জন্ম নিয়ন্ত্রণ পদ্ধতি তারা সরবরাহ করে। এর মধ্যে অন্যতম ইমপ্লানন ক্যাপসুল। এটা তিন বছর মেয়াদি দীর্ঘ পদ্ধতি। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দ্বারা কোনও ধরনের অস্ত্রোপচার ছাড়াই মাত্র তিন মিনিটেই স্থাপন করা যায়।

স্তন্যদায়ী মায়েরাসহ বেশির ভাগ নারীদের জন্য ক্যাপসুলটি খুব উপযুক্ত। এটার দাম মাত্র পাঁচ মিসরীয় পাউন্ড (.৩০ ডলার)।

করোনাকালে নারীদের সন্তান না নেওয়ার আহ্বান নিয়ে জয়নাব আবদেল-মেগুইদ নামে ৪০ বছর বয়সী এক মিশরীয় নারী ডাক্তার বলেন, মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিটা ঠিক আছে। কিন্তু আরও আগে দিলে ভালো হতো। ফেব্রুয়ারির দিকে মিশরে যখন সংক্রমণ শুরু হয়েছিল তখন এই বিবৃতি দেওয়া দরকার ছিল।

বিডি প্রতিদিন/কালাম


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর