শিরোনাম
প্রকাশ : ৩০ মার্চ, ২০২১ ১৪:৪৫
আপডেট : ৩০ মার্চ, ২০২১ ১৪:৪৭
প্রিন্ট করুন printer

উদ্ধারকৃত বিলুপ্ত প্রায় ১৬ শকুন উড়ার অপেক্ষায়

দিনাজপুর প্রতিনিধি

উদ্ধারকৃত বিলুপ্ত প্রায় ১৬ শকুন উড়ার অপেক্ষায়

প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষায় বিলুপ্ত প্রায় উদ্ধারকৃত ১৬টি শকুনকে সিংড়া জাতীয় উদ্যানে উদ্ধার করে পরিচর্যাকেন্দ্রে সুস্থ হয়ে খোলা আকাশে উড়ানোর প্রস্তুতি চলছে। দিনাজপুরের বীরগঞ্জ সিংড়া জাতীয় উদ্যানে আনুষ্ঠানিক ভাবে এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহে এসব শকুনকে প্রকৃতিতে ছেড়ে দেওয়া হবে। 

বীরগঞ্জের সিংড়া জাতীয় উদ্যানে শকুনের জন্য পরিচর্যা ও পুনবার্সন কেন্দ্রে চিকিৎসাধীন শকুনের জন্য গড়ে প্রতিদিন ৬ কেজি বয়লার মুরগী, স্যালাইন, পানি ওষুধ দেওয়া হয় বলে জানায় শকুনদের তদারককারী বেলাল হোসেন। 

বীরগঞ্জ সিংড়া জাতীয় উদ্যানের বনবীট কর্মকর্তা হরিপদ দেবনাথ জানান, 'বিলুপ্ত প্রায় উদ্ধারকৃত শকুনকে রক্ষা ও প্রকৃতির ভারসাম্য রক্ষায় সিংড়া জাতীয় উদ্যানে শকুনগুলোকে অবমুক্ত করা হয়।'

গত ৪ বছর ধরে দেশে বিলুপ্ত ও বিপন্ন প্রায় শকুনকে বাচাঁতে আইইউসিএন বাংলাদেশ ও বন বিভাগ যৌথভাবে একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। সামাজিক বন বিভাগ দিনাজপুরের বীরগঞ্জে সিংড়া জাতীয় উদ্যানে আইইউসিএন বাংলাদেশে শকুন উদ্ধার, পরিচর্যা এবং পুনর্বাসন কেন্দ্র স্থাপন করেছে। 

চলমান কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সিংড়া জাতীয় উদ্যানে এখন পরিচর্যায় ছিল ২০টি শকুন। উদ্ধারকৃত দুটি শকুন মারা গেছে এবং দুটি উড়ে চলে গেছে। বর্তমানে ১৬টি শকুন সুস্থ্ হয়ে অবমুক্তির অপেক্ষায়। আগামী ৩ এপ্রিল অবমুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে। 

তিনি আরও জানান, 'হিমালয়ের পাদদেশে দিনাজপুর, ঠাকুরগাঁও এবং পঞ্চগড় জেলা অবস্থিত। এ কারণে এই এলাকায় এখনো কিছু শকুন দেখা যায়। অনেক সময় এগুলো অতিথি হয়ে আসে। তবে এ এলাকার মানুষ যদি সচেতন হয় এবং শকুন উদ্ধার করে অথবা সংবাদ প্রদান করে তাহলে তাদের উদ্ধার করে পুনর্বাসন কেন্দ্রের মাধ্যমে চিকিৎসা প্রদান করার মাধ্যমে তাদের বিলুপ্তি থেকে রক্ষা করা সম্ভব হবে।' 

 

বিডি প্রতিদিন / অন্তরা কবির 


আপনার মন্তব্য

এই বিভাগের আরও খবর