১৪ অক্টোবর, ২০২২ ১১:১১

পরমাণু যুদ্ধের জন্য উত্তর কোরিয়া পুরোপুরি প্রস্তুত, কিমের হুঁশিয়ারি

অনলাইন ডেস্ক

পরমাণু যুদ্ধের জন্য উত্তর কোরিয়া পুরোপুরি প্রস্তুত, কিমের হুঁশিয়ারি

প্রতীকী ছবি

সম্প্রতি একের পর এক পরমাণু ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালাচ্ছে পূর্ব এশিয়ার দেশ উত্তর কোরিয়া। সর্বশেষ স্থানীয় সময় শুক্রবার দেশটির পূর্ব উপকূল থেকে সমুদ্রে একটি স্বল্প-পাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে। একইসঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়ার সীমান্তের কাছে একসঙ্গে প্রায় ১০টি যুদ্ধবিমান উড়িয়েছে উত্তর কোরিয়া।

এর আগে বুধবার পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম ২,০০০ কিলোমিটার পাল্লার দুটি ক্রুজ মিসাইলের পরীক্ষা চালায় দেশটি।

এ নিয়ে উত্তর কোরিয়ার সরকারি সংবাদমাধ্যম ‘কোরিয়ান সেন্ট্রাল নিউজ এজেন্সি’ বৃহস্পতিবার জানায়, পরমাণু হামলার ক্ষমতা যাচাইয়ের উদ্দেশ্যে দু’টি ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষা চালানো হয়েছে। সমুদ্রের উপর দিয়ে ২,০০০ কিলোমিটার আকাশপথ পাড়ি দিয়ে নির্দিষ্ট লক্ষ্যে আঘাত হেনেছে ক্ষেপণাস্ত্র দু’টি।

এরপরই পশ্চিমা বিশ্বকে হুঁশিয়ারি দেন উত্তর কোরিয়ার শাসক কিম জং উন! বৃহস্পতিবার তিনি ঘোষণা দিয়ে বলেন, “শত্রুদের মনে করিয়ে দিতে চাই, আমাদের দেশ পরমাণু যুদ্ধের জন্য পুরোপরি প্রস্তুত।”

উল্লেখ্য, চলতি বছরের শুরুর দিকে উত্তর কোরিয়া ধারাবাহিকভাবে মাঝারি ও দূরপাল্লার ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা শুরু করার পরই কিমের ‘গোপন পরমাণু পরিকল্পনা’ নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছিল আমেরিকা ও ইউরোপের দেশগুলো। তার আগে ২০১৫ সালে উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকূলে পুনগেরি এলাকায় খননকার্য আমেরিকার গুপ্তচর উপগ্রহের নজরে এসেছিল। সে সময়ও পিয়ং ইয়ংয়ের পরমাণু পরীক্ষার প্রস্তুতি নিয়ে শঙ্কার কথা জানিয়েছিল আমেরিকা। তার বছর দেড়েকের মধ্যেই পরমাণু পরীক্ষা করেছিল কিম জং উনের সরকার। এবার কিম নিজেই পরমাণু যুদ্ধের প্রস্তুতির কথা বলে সেই আশঙ্কা আরও উস্কে দিলেন। সূত্র: সিএনএন

বিডি প্রতিদিন/কালাম

এই বিভাগের আরও খবর

সর্বশেষ খবর